তুলা চাষে ভাগ্য বদলের স্বপ্ন রাঙামাটির তুলা চাষীদের

তুলা চাষে ভাগ্য বদলের স্বপ্ন দেখছেন রাঙামাটির তুলা চাষীরা। বেশি লাভ হওয়ায় জুমের পরিবর্তে পাহাড়ের অনেকেই তুলা চাষ করছেন। কৃষকদের তুলা চাষে উৎসাহিত করতে বিনামূল্যে কৃষকদের বীজ ও সার দিচ্ছে তুলা উন্নয়ন বোর্ড। শুধু তাই নয় কৃষকের তুলাও কিনে নিচ্ছে তারা।

পার্বত্য চট্টগ্রাম এক সময় কার্পাস বা তুলা মহল হিসেবে পরিচিত ছিল।

কালের বিবর্তনে তুলা চাষের সেই ঐতিহ্য হারিয়ে গেলেও সম্প্রতি তুলা উন্নয়ন বোর্ড রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের ওয়া¹া ইউনিয়নে সিবি ১২, ১৩, ১৪ প্রজাতির প্লট তৈরি করে হাইব্রিড তুলা চাষে সাফল্য পেয়েছে।

এই অঞ্চলে তুলা চাষের ব্যাপক সম্ভাবনাও দেখছে তুলা উন্নয়ন বোর্ড। তাইতো চাষীদের বিনামূল্য দেওয়া হয় বীজ, সার ও কীটনাশক। বিঘা প্রতি গড়ে ১২ মণ তুলা উৎপাদিত হচ্ছে। কৃষকের উৎপাদিত তুলা কিনেও নিচ্ছে তুলা উন্নয়ন বোর্ড। মন প্রতি কৃষক পাচ্ছেন দুই হাজার একশ টাকা।

সরকারী পৃষ্ঠপোষকতার পাশাপাশি চাষীদের উৎসাহ দিলে পাবর্ত্য চট্টগ্রামের তুলা চাষের ঐতিহ্য আবার ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে মনে করছেন কৃষক।

Leave a Reply