বঙ্গোপসাগরের তীর ঘেষে নির্মাণ করা হচ্ছে আট লেনের নতুন সড়ক

বঙ্গোপসাগরের তীর ঘেষে নির্মাণ করা হচ্ছে আট লেনের নতুন সড়ক। পতেঙ্গা থেকে ফৌজদার হাট পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সড়কের নির্মানে ব্যয় হচ্ছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা। সড়কটি নির্মিত হলে চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থার আমুল পরিবর্তন ঘটবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগামের দুর্বল অবকাঠামো, যানজট এবং সড়কের অব্যবস্থার কারনে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ। এ অবস্থায় চট্টগ্রামকে একটি বিশ্বমানের নগরী হিসাবে গড়ে তুলতে যোগযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-সিডিএ। এ ধারাবাহিকতায় বঙ্গোপসাগরের তীর ঘেষে নির্মান করা হচ্ছে নতুন সড়ক। জাইকার সহায়তায় এই সড়ক নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা। ১৭ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ২১ মিটার প্রস্থ এই সড়কটি একদিকে সংযুক্ত হবে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাথে, অপর প্রান্ত সংযুক্ত হবে কর্ণফুলীর তলদেশে নির্মান হতে যাওয়া ট্যানেলের সাথে।

জমি অধিগ্রহনের পর এখন চলছে মাটি ভরাটের কাজ। সড়কটি নির্মিত হলে চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থার আমুল পরিবর্তন ঘটবে বলে মনে করেন নগর পরিকল্পনাবিদ।

নতুন এই সড়কটি নির্মাণের ফলে বিদেশী বিনিয়োগ এবং পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটবে বলে মনে করেন সিডিএ চেয়ারম্যান।

এছাড়া চট্টগ্রাম মহানগরীতে যানজটও কমবে বলে মনে করেন নগর পরিকল্পনাবিদরা।

Leave a Reply