সারাদেশে একযোগে শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা

সব পরীক্ষার্থী যাতে যথাযথ নম্বর পায়, সেজন্য পরীক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। সকালে রাজধানীর ধানমন্ডি ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ’কথা জানান তিনি। গত তিন বছর ধরে প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে না উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মানসম্মত শিক্ষার উপর জোর দিয়েছে সরকার।

সারাদেশে একযোগে শুরু হয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। জীবনের অন্যতম এই পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিতে প্রথমদিন একটু আগেভাগেই কেন্দ্রে হাজির হয় শিক্ষার্থীরা।

পরীক্ষা শুরু পরই ধানমিন্ড সরকারী ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্র ঘুরে দেখেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, মন্ত্রনালয় সচিব সহ উর্ধতন কর্মকর্তারা।

পরে সাংবাদিকদের কাছে পরীক্ষার নানা তথ্য তুলে ধরেন। বলেন, শিক্ষা ও পরীক্ষা ব্যবস্থা সহজ করার কথা। সরকারের দৃঢ়তায় পরীক্ষাপত্র ফাঁসের ঘটনা হচ্ছেনা বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে সৃজনশীল পদ্ধতি বাড়ানোয় কিছুটা ক্ষোভ জানান অভিভাবকরা।

১৭লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় যা গেলো বারের চেয়ে ১লাখ ৩৫ হাজার ৯০ জন বেশি। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মাথায় ফলাফল দেয়া হবে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।

Leave a Reply