পুঁজিবাজারে আবারো গতি ফিরেছে

মন্দাভাব কাটিয়ে আবারো গতি ফিরেছে দেশের পুঁজিবাজারে। গেল বছরের শেষ প্রান্তিক থেকে ক্রমেই বাড়ছে লেনদেনের পরিমাণ। একইসঙ্গে প্রাণ ফিরে পেয়েছে ব্রোকারেজ হাউজগুলোও। অর্থমন্ত্রী এবং বাজার সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন, শিগগিরই শক্ত ভীতের ওপর দাঁড়াবে পুঁজিবাজার। তবে, বিনিয়োগকারীদের আরো সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

ব্রোকারেজ হাউজগুলোতে এমন চিত্র দেখা যায়নি দীর্ঘদিন। ২০১০ সালে ভয়াবহ ধসের পর থেকে অনেকটাই নিস্পাণ ছিলো ব্রোকারেজ হাউজগুলো। কিন্তু, বাজার স্থিতিশীল হওয়ায় ফের জমজমাট হয়ে উঠেছে হাউজ। নানামুখী সংস্কারের ফলে বাজারে যে আস্থার সঞ্চার হয়েছে, তা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে প্রত্যাশা সাধারণ বিনিয়োগকারীদের।

পুঁজিবাজার নিয়ে আশাবাদী বিশেষজ্ঞরাও। তাদের মতে, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে পুঁজিবাজার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

এদিকে, পুঁজিবাজারে গতি ফিরে আসাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বিএসইসির চেয়ারম্যানের মতে, দেশের পুঁজিবাজারকে কাজে লাগানোর ব্যাপক সুযোগ রয়েছে।

এদিকে, পুঁজিবাজারকে আরো শক্তিশালী করতে দেশে ব্যবসা করা বহুজাতিক কোম্পানিগুলোকে তালিকাভুক্তির তাগিদ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

পুঁজিবাজার অপেক্ষাকৃত বেশি ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় সচেতন হয়ে বিনিয়োগের পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

Leave a Reply