আগামী ২৩ এপ্রিল তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত

আগামী ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এবার প্রাণহানি ও সহিংসতা এড়াতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহবান জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে তিনি আরো জানান. আগের নির্বাচনগুলোতে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহতদের ঘটনা তদন্ত করা হবে।

ECপ্রথম বারের মত দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতা ও প্রাণহানির ঘটনায় বিতর্কের মুখে নির্বাচন কমিশন। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের মধ্যে সহিংসতা তো আছেই, আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর গুলিতেও প্রাণ হারিয়েছেন অনেকেই। তাই পরবর্তী নির্বাচনগুলোতে প্রাণহানি ও সহিংসতা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধানদের সাথে নির্বাচন কমিশনের এই বৈঠক।

তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে  ৬২০ টি ইউনিয়নে। ৪র্থ ধাপে হবে ৭২৭ টি ইউনিয়নে পরিষদে। এরই মধ্যে ৪র্থ ধাপ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন ও জমা দিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলো। গ্রফিক্স
তবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ‘ঝামেলাপূর্ণ’ উল্লেখ করে পরবর্তী নির্বাচন গুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বলেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিবসহ সংশ্লিস্ট বাহিনীর প্রধানরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে নিহতের ঘটনাও তদন্ত হবে বলে জানান সিইসি।

পরবর্তী ইউপি নির্বাচনগুলোতে সহিংসতা কমাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোন কোন কর্মকর্তা রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনায় পরামর্শ দিলেও তা নাকচ করে দেয় ইসি।

Leave a Reply