ক্ষমতার মেয়াদ পাঁচ বছর হলেও, এই সময়ের মধ্যেই সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

সরকারের টাকা যাতে কোনাভাবেই অপচয় না হয়, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারিদের সেদিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরের বার্ষিক কর্ম-সম্পাদন চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ক্ষমতার মেয়াদ পাঁচ বছর হলেও,  এই সময়ের মধ্যেই সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের আগামী এক বছরের কর্ম পরিকল্পনা স্থীর করতেই,  বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় শাপলা হলে ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরের বার্ষিক কর্ম-সম্পাদন চুক্তিস্বাক্ষর হয়। এত স্ব স্ব মন্ত্রণালয় চুক্তি স্বাক্ষরের পর প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন। ফলে সরকারের প্রতিটি বিভাগের কাজ যেমন রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ের নজরে থাকে, তেমনি মাঠ পর্যায়ের কর্মচারিরাও তাদের কাজ সম্পর্কে অবগত থাকেন। নিশ্চিত হয় উন্নয়ন ও পরিসেবা।

পরে প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে জনগনের মৌলিক চাহিদা পূরনই সরকারের মুল লক্ষ।

নানা ষড়যন্ত্রে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

বেশি কাজ আর অপচয় কমাতে প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তাদের কঠোর নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

স্বলপ মেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়নের পাশাপাশি দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহন ও  বাস্তবায়নের তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Leave a Reply