সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে, অংশ নেয়ার জন্য বিএনপি প্রস্তুত

সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে, অংশ নেয়ার জন্য বিএনপি প্রস্তুত বলে জানালেন দলটির নেতারা। নিরপেক্ষ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ভয় পায় বলেও ক্ষমতাসীনরা নির্দলীয় সরকারের দাবি মানছে না- এমনটাও বলছেন তারা। এদিকে, আগেরবারের মতো ১৫৩ জন সাংসদ বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হওয়ার মতো নির্বাচন কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হবে না, বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

৫ই জানুয়ারীর নির্বাচনে অংশ না নেয়ার মধ্য দিয়ে সংসদীয় কার্যক্রম থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে বিএনপি। একই সঙ্গে ক্ষমতার বাইরে প্রায় ১০বছর অতিক্রম করলেও মধ্যবর্তী নির্বাচন আদায়ের আন্দোলনে সফল হয়নি দলটি। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে নেতাকর্মীদেরকে এখন থেকেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বলেছেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা।

এমন পরিস্থিতিতে পরবর্তী জাতীয় নির্বাচনের জন্য কতোটুকু প্রস্তুত বিএনপি- এমন প্রশ্নের জবাবে দলটির নীতি নির্ধারকরা বলছেন, বসে নেই তারাও। তবে জনগনের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়াটাই চ্যালেঞ্জ।

রাজনৈতিক কার্যক্রম চালাতে সরকার বাধা দিলেও বিএনপি প্রতিনিয়ত শক্তিশালী ও জনপ্রিয় হচ্ছে বলে দাবি করেছেন এই নেতা। নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জয়ী হওয়ার ব্যাপারেও আশাবাদী বিএনপি।

এদিকে রাজনীতি বিশ্লেষকরা মনে করেন, অর্থবহ নির্বাচন করতে হলে সবদলের অংশ গ্রহণ জরুরী।

নির্বাচনের মাধ্যমেই ক্ষমতার পালাবদল হওয়া উচতি বলেও মনে করেন তারা।

Leave a Reply