বিনা বিচারে ১৭ বছর কারাভোগের পর শিপনের জামিন

রাজধানীর সূত্রাপুর থানার একটি হত্যা মামলায় গ্রেফতার হয়ে বিনা বিচারে ১৭ বছর কারাভোগের পর শিপনকে জামিন দিয়েছে হাই কোর্ট। একই সঙ্গে ৬০ দিনের মধ্যে এ মামলার বিচার শেষ করতে হবে বলে আদেশ দেয়া হয়েছে । সংবিধান অনুসারে দ্রুত ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে না পারা রাষ্ট্র ও বিচার ব্যবস্থার জন্য লজ্জাকর বলে মন্তব্য করেছেন আদালত।

অবশেষে ১৭ বছর পর জামিন পেলেন বিনা বিচারে আটক থাকা শিপন। তবে জামিন পাবার সংবাদে আনন্দ নেই তার চোখে মুখে। আছে ভাবলেশহীন চাহনী।

গত ৩০ অক্টোবর প্রচারিত প্রতিবেদন আদালতের নজরে আনলে ২২ বছর আগে দায়ের হয়ে নিষ্পত্তি না হওয়া হত্যা মামলার নথি তলব করেন। একই সঙ্গে শিপনকে আদালতে হাজির করতে নির্দেশ দেন। শুনানী শেষে জামিনে মুক্তির আদেশ দেয় বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও জেবিএম হাসানের বেঞ্চ।

আদালতের জিজ্ঞাসাবাদে শিপন বলেন, তিনি হত্যাকান্ডে জড়িত নন। ঘটনার পর তাঁকে ধরে নিয়ে হাত কেটে দেওয়া হয়। জামিন পেয়ে শিপন বাবা-মার কাছে যাবেন বলে আদালতের প্রশ্নের উত্তরে জানান ।

এ ধরনের ঘটনা লজ্জাজনক বলে মন্তব্য করেছেন আইনবিদরা।

মাহতাব নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগে ১৯৯৪ সালের সূত্রাপুর থানায় মামলা হয়। মামলার দুই নম্বর আসামি মো. শিপন ২০০০ সালের ৭ নভেম্বর থেকে কারাগারে আছেন। চলতি বছরের ২৬ এপ্রিল থেকে মামলাটি ঢাকার পরিবেশ আপিল ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন।

Leave a Reply