তুলা আমদানিতে প্রতিবন্ধকতা দূর ও উৎপাদক দেশের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে সরকারের প্রতি আহ্বান

তুলা আমদানিতে প্রতিবন্ধকতা দূর ও উৎপাদক দেশের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। শুক্রবার  দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে দুই দিনব্যাপী গ্লোবাল সামিটে বক্তারা এ’কথা বলেন।

বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি তৈরি পোশাকখাত। আর এ’ খাতে ব্যবহৃত কাঁচামাল- তুলার ৯৬ শতাংশের বেশি আমদানী নির্ভর। এই আমদানির ৫০ শতাংশ আসে ভারত থেকে। নিয়ন্ত্রণ কম থাকায় মাঝে মধ্যেই দামের উঠা নামা হয়। এ’ কারণে বিরুপ প্রভাব পড়ে তৈরি পোশাক শিল্পে।

বিষয়টি সমাধানের উপায় বের করতে টেক্সটাইল মিলস ও কটন অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে আয়োজন করা হয়েছে দুই দিনব্যাপী গ্লোবাল সামিটের।

প্রথম সেশনে ভারত, আফ্রিকা, তুরস্ক সহ রপ্তানীকারক দেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

তুলা শিল্পের বাজার স্থিতিশীল করার উপর গুরুত্বারোপ করেন বাংলাদেশ ও সুদানের ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশের ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, সীমাবদ্ধতা থাকলেও দেশের গার্মেন্ট ও কটন শিল্প এগিয়ে যাচ্ছে। এ’ শিল্পের উন্নয়নে সরকারের সহযোগিতা চান তারা।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পের উন্নয়নে সব ধরণের সহযোগিতা দেবে সরকার।

Leave a Reply