কুষ্টিয়ায় ভূমি অফিসে চালু হয়েছে ডিজিটাল পদ্ধতি

ডিজিটাল পদ্ধতি চালু হওয়ায় বদলে গেছে কুষ্টিয়ার কুমারখালী ভূমি অফিসের সেবা দান পদ্ধতি। এতে সেবা নিতে গিয়ে জমি মালিকদের হয়রানি কমেছে। ভূমি অফিসের অসাধু কর্মচারী ও দালালদের দৌরাত্ম্যও এখন আর নেই । দ্রুত সেবা পাওয়ার পাশাপাশি খরচ কমায় খুশি ভূমি মালিকরা।

ল্যাপটপ অথবা ডেস্কটপে এক ক্লিকেই চোখের সামনে ভেসে উঠছে সরকারি বেসরকারি জমির দাগ খতিয়ানসহ সব তথ্য।

এ চিত্র কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা ভূমি অফিসের। মান্ধাতা আমলের পদ্ধতি বাতিল করে ডিজিটাল পদ্ধতি চালু হওয়ায় কমেছে মানুষের হয়রানি। সেইসঙ্গে দ্রুতই সেবা পাচ্ছেন তারা।

আগে এ উপজেলার ভূমি মালিকদের নামজারি, পর্চা উঠানোসহ ভূমি সংক্রান্ত সেবা পেতে ঘুরতে হতো মাসের পর মাস। ছুটতে হতো এ অফিস থেকে ও অফিস। ডিজিটাল পদ্ধতি চালু হওয়ায় কমেছে এসব ভোগান্তি।

জেলা ও উপজেলা প্রশাসন বলছে, নতুন পদ্ধতিতে সেবা গ্রহিতাদের সময় ও টাকার সাশ্রয় হচ্ছে। বাস্তবায়িত হচ্ছে সরকারের লক্ষ্য।

দেশের সব ভূমি অফিসে ডিজিটাল পদ্ধতি চালু হলে কমবে জনভোগান্তি।

Leave a Reply