আর মাত্র দু’দিন পরেই তৃতীয় দফায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

তৃতীয় দফায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আর দু’দিন পরেই। নির্বাচনী এলাকাগুলোতে চলছে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে। বরাবরের মতোই উন্নয়নের প্রতিশ্র“তি নিয়ে। ভোটের হাওয়ায় সরগরম পাড়া-মহল্লা, হাট-বাজার। কোন কোন জায়গায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে উঠেছে আচরণ বিধি লংঘনের অভিযোগও। তবে ভোটার বলছেন, যোগ্য জনপ্রতিনিধিই বাছাই করবেন তারা।

ইউপি নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে গাজীপুরে ভোট গ্রহণ হবে তিন উপজেলার ২০টি ইউনিয়নে। নৌকা, ধানের শীষ, লাঙ্গল প্রতীক ছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেও মাঠে আছেন অনেকেই। ইউনিয়নেগুলোতে চেয়ারম্যান পদে ৯৪, সংরক্ষিত সদস্য পদে ২০৮ এবং সাধারন সদস্য পদে ৭৮১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা শক্ত অবস্থানে থাকলেও ভোট সুষ্ঠ হওয়া নিয়ে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা রয়েছেন সংশয়ে।

নির্বাচনী এলাকার ভোটারের সংখ্যা ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৫৫২ জন ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন উপজেলার ৩১টি ইউনিয়নে হবে নির্বাচন। শেষ মুহুর্তে কোমর বেঁধে প্রচারে ব্যস্ত প্রার্থীরা।

ভোটাররা যাতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিতে পারে তার জন্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

নড়াইলের মাইজপাড়া, মুলিয়া, আউড়িয়া, শাহাবাদ, তুলারামপুর, চন্ডিবরপুর ও হবখালী  ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অন্তহীন ব্যস্ত প্রার্থী ও সমর্থকরা।

সিরাজগঞ্জের চৌহালীর চরাঞ্চলে তুঙ্গে নির্বাচনী আমেজ। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জয়ের আশা সবার।

এদিকে প্রার্থীদের কাছে নানা প্রতিশ্র“তি আর আশ্বাস পেলেও বুঝে শুনেই ভোট দেবেন, বলছেন ভোটাররা।

নির্বাচনী এলাকাগুলোর হাট-বাজারে চা’য়ের কাপে ঝড়, যোগ্য জনপ্রতিনিধি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায়। সব ছাপিয়ে ভোটারদের চাওয়ায় একটাই, নির্বাচিত প্রতিনিধি যেন এলাকার জন্য কাজ করেন।

Leave a Reply