দিনাজপুরে ১২’শ বছর আগের মন্দিরের সন্ধান

দিনাজপুরে কাহারোলে প্রায় ১২’শ বছর আগের একটি মন্দিরের সন্ধান পেয়েছেন প্রতœতত্ত্ববিদরা। খননকাজ করছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতœতত্ত্ব বিভাগের একটি দল। তারা বলছেন, পূর্ব ভারতীয় সনাতনী স্থাপত্যের গঠনের সঙ্গে এর মিল রয়েছে। বাংলাদেশের প্রতœতত্ত্ব স্থাপনার তালিকায় মন্দিরটি একটি গুরত্বপূর্ণ সংযোজন।

মাধবগাঁও বুরুজ। দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার ডাবোর ইউনিয়নের এ জায়গাটিকে উুঁচু ঢিবি হিসেবেই জানতো স্থানীয়রা। শত বছর ধরে অজানাই থেকে গেছে ঢিবির নিচের প্রাচীন স্থাপনা। সম্প্রতি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতœতত্ত্ব বিভাগের একটি দল শুরু করে খনন কাজ। সন্ধান পায় ১২শ’ বছর আগের হিন্দু মন্দিরের।

ইটের তৈরি মন্দিরের বিভিন্ন অংশে বিষ্ণু প্রতীমার উপকরণ যেমন শঙ্খ, চক্র, গদা এবং পাথরের একটি দেবি প্রতীমারও ভগ্নাংশ পাওয়া গেছে। তাই স্থানীয়রা মনে করছেন, এ উপজেলার কান্তজিউ মন্দিরের মতো এটিও কোন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।

<ংঃৎড়হম> গবেষক দলটি জানিয়েছে, পূর্ব ভারতীয় মন্দির স্থাপত্যের গঠনের সঙ্গে মাধবগাঁও বুরুজের মিল রয়েছে। প্রায় ১৭ শ’ বর্গমিটার স্থাপনাটির খনন কাজ শেষ করতে আরো ২ মাস সময় লাগবে বলেও জানান তারা।

এরইমধ্যে দূরদুরান্তের মানুষজন আসছেন মাধবগাঁও বুরুজে। এটি সংরক্ষণের দাবী সবার।

Leave a Reply