বরগুনায় যুবকের মৃত্যুর ৩ দিন পরও থানায় মামলা হয়নি

বরগুনার পাথরঘাটায় গ্রামে মাছ চুরির ঘটনায় মিঠু মন্ডল নামে এক যুবকের মৃত্যুর ৩ দিন পরও থানায় মামলা হয়নি, আটকও হয়নি কেউ। স্থানীয়রা জানায়, মাছ চুরির অভিযোগ এনে প্রতিবেশী হারুন হাওলাদার ও তার ছেলেরা বেদম মারধর করে মিঠুকে। পরে পাশের বাড়ির পরিত্যক্ত ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় তার মৃতদেহ।

গেলো বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশের খালে নিজের পাতা মাছ ধরার চাঁইয়ের সাথে প্রতিবেশী হারুন হাওলাদারের একটি চাঁই তুলে দেখে মিঠু। এ ঘটনায় হারুন ও তার ছেলেরা তাকে ধরে বেদম মারধর করে। এর ঘণ্টা খানেক পরই পাশের বাড়ির পরিত্যক্ত একটি ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় মিঠুর মরদেহ।

এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা নিশ্চিত না হলেও প্রতিবেশীরা বলছেন, মিঠুর গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখেছেন তারা। এদিকে হারুন হাওলাদারের বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি, ঘর ছিল তালাবদ্ধ।

ঘটনার তিন দিন পরও থানায় কোন মামলা হয়নি। আটকও হয়নি কেউ। তাই পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রতিবেশীদের সাথে প্রশ্ন তুলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিও। তবে পুলিশ বলছে, আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে তৎপরতা অব্যাহত আছে।

ঘটনার সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের শাস্তির দাবি এলাকাবাসীর।

Leave a Reply