বরগুনায় নির্মিত আশ্রায়ন প্রকল্প ও ব্যারাক হাউসের বেশির ভাগই বসবাস অনুপযোগী

দুস্থ পরিবারদের পুনর্বাসনে বরগুনায় নির্মিত আশ্রায়ন প্রকল্প ও ব্যারাক হাউসের বেশির ভাগ ঘরই হয়ে পড়েছে বসবাস অনুপযোগী। প্রায় ১৫ বছর আগে নির্মিত এসব ঘর নির্মানের পর একবারো সংস্কার করা হয়নি। আর তাই প্রায় ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে ভাঙ্গাচোরা এসব ঘরে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে দুস্থ পরিবার গুলো। অনেকে আবার বাধ্য হয়ে ছেড়েছে ঘর।

রোদ বৃষ্টি ঝড়ে দিনের পর দিন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে আশ্রায়ন প্রকল্প ও ব্যারাক হাউসের বাসিন্দারা।

১৯৯৭ সালে বাংলাদেশ সরকার এবং ২০০৯-২০১০ অর্থবছরে জাপান সরকারের সহায়তায় আশ্রায়ন ও ব্যারাক হাউসগুলো নির্মাণ করা হয়। ২৮টি আশ্রায়ন ও ১৮২টি ব্যারাক হাউজে পুনর্বাসন করা হয় চার হাজার ৩৩৭টি গৃহহীন পরিবারকে। তবে, এই প্রকল্পের ঘরগুলো এখন আর নেই বসবাস উপযোগী, বেড়ার দেয়াল ও জানালা খসে পড়েছে। ভেঙ্গে গেছে ঘরের ভিত্তি আর পিলার।

এ ছাড়াও বেরিবাঁধের বাইরে এর অবস্থান হওয়ায় জোয়ারের সময় পানিতে প্লাবিত হয় পুরো এলাকা। তার পরও মাথা গোজার ঠাঁই না থাকায় এখানেই পড়ে থাকতে হচ্ছে অসহায় পরিবারগুলোকে।

এদিকে ঘরগুলি ব্যবহারের অনুপযোগী এমনটি স্বীকার করে শীগগিরই মেরামতের আশ্বাস দিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসন।

দ্রুত মেরামত করা হবে ঘরগুলো, এমনটাই দাবি দুস্থ পরিবারগুলোর।

Leave a Reply