বিভিন্ন জেলায় জমাট বাঁধা সার সরবরাহ

উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হচ্ছে, জমাট বাঁধা সার। দীর্ঘদিন খোলা আকাশের নিচে ফেলে রাখায় এসব সারের গুণগত মান নষ্ট হয়ে গেছে দাবি ডিলারদের। টাকা দিয়ে নিম্নমানের সার নিতে রাজি নয় কৃষকরাও। এদিকে জমাট বাধলেও সারগুলো ব্যবহারের উপযোগি বলে জানান, ব্যবসায়ীদের।

দুই বছর আগে বাঘাবাড়ি বন্দর দিয়ে আনা আমদানিকৃত সারের মাত্র ৮ হাজার টনের স্থান হয় বাফার গোডাউনে।  বাকি সার পলিথিনে জড়িয়ে খোলা আকাশের নিচে রাখা হয়। অযতেœ রাখা এসব সারের প্রায় ৬ হাজার টন জমাট বেঁধে গেছে।

জমাট বাঁধা এসব সার বিসিআইসির নির্দেশে বন্দর ইজারাদার কর্তৃপক্ষ নতুন সারের সাথে মিশিয়ে সরবরাহ করছে সিরাজগঞ্জসহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায়।

গুণগত মান নষ্ট হওয়ায় সার নিতে অনাগ্রহী ডিলাররা।

কিন্তু ইজারাদারদের দাবি, অক্ষুন্ন আছে সারের গুণগত মান।

এদিকে বিষয়টি জানতে পেরে জমাট বাধা সার কিনতে রাজি হচ্ছেন না কৃষকরা।

যদিও সারগুলো ব্যবহারের উপযোগি বলে কৃষকদের আশ্বস্ত করেছেন উপজেলা প্রশানের এই কর্মকর্তা।

বোরো মৌসুমে ব্যবহারের আগেই সারগুলো গুণগত মান পরীক্ষার দাবি সংশ্লিষ্টদের।

Leave a Reply