তনু হত্যাকাণ্ডের ১ বছরেও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে ঘাতকরা

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যার এক বছর পভা পার হলেও চিহ্ণিত হয়নি ঘাতকরা। একাধিকবার তদন্তকারী সংস্থা পরিবর্তন হয়ে বর্তমানে মামলাটি তদন্ত করছে কুমিল্লা সিআইডি। তবে তদন্তে নেই দৃশ্যমান অগ্রগতি। মামলার ধীর গতির কারনে হতাশ ও ক্ষুদ্ধ কুমিল্লাবাসী।

২০মার্চ ২০১৬। রাতে কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরের একটি জঙ্গল থেকে উদ্ধার করা হয় কলেজছাত্রী তনুর মরদেহ । ময়না তদন্তে প্ওায়া যায় ধর্ষণের আলামত। নেয়া হয় ডিএনএসহ বিভিন্ন আলামত।

দেখতে দেখতে পার হয়ে গেল একটি বছর। থানা পুলিশ থেকে ডিবি পুলিশ হয়ে মামলাটি বর্তমানে সিআইডতে। তবে নেই দৃশ্যমান অগ্রগতি। সাজের্ন্ট জাহিদসহ ২৫ জনের সাথে ৩ ধর্ষকের ডিএনএ মিলেনি। তবে অন্যান্য আলামত নিরীক্ষা করে তদন্ত এগিয়ে নেবার কথা বলছে পুলিশ।

এদিকে তনুর প্রকৃত খুনিদের চিহ্ণিত করে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষার্থীরা।

পরিবারের পক্ষ থেকে কবর জিয়ারতের পর অনুষ্ঠিত হয় মিলাদ মহফিল।

এছাড়া রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানবন্ধনে তনু হত্যার তদন্তে টালবাহানা চলছে বলে অভিযোগ করেছে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম।

Leave a Reply