প্রতারণার নতুন নাম পিবিডিএফ ওয়েল ফেয়ার টিকিট

সাধারণ মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলার নতুন নাম পিবিডিএফ ওয়েল ফেয়ার টিকিট। মাত্র বিশ, পঞ্চাশ ও একশ’ টাকায় লাখপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। শুধু ঢাকা নয়, চক্রটি বিস্তৃত সারাদেশেই। সিটি কর্পোরেশনের ট্রেড লাইসেন্স আর জয়েন্ট স্টকের নিবন্ধন দিয়েই চলছে এই রমরমা অবৈধ বাণিজ্য।

এই জটলা পিবিডিএফ ওয়েল ফেয়ার টিকিট কেনার জন্য। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে টিকিট বিক্রি।

টিকিট কিনে প্রতারিত হওয়ার কথা জানালেন অনেকেই।

শুধু রাজধানীই নয়, চট্টগ্রাম এবং কুমিল্লাতেও রয়েছে তাদের অফিস। তবে, টিকিটের উপর লেখা স্থানে নয়, সব অফিসই ভিন্ন ঠিকানায়। সেসব অফিসে কাজ করেন বেশ কয়েকজন চীনা নাগরিকও।

রাজধানীর মিরপুর ডিওএইচএস এলাকায় নামফলক বিহীন প্রধান কার্যালয়। প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীর কাছে এমন টিকিট বিক্রির কী অনুমতি আছে জানতে চাইলে, সিটি কর্পোরেশনের ট্রেড লাইসেন্স দেখান তিনি। পরে দেখা যায়, সেটি জাল।

ট্রেড লাইসেন্সে এমন ব্যবসার অনুমতি নেই বলে জানালেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা।

একই দাবি জয়েন্ট স্টক কোম্পানির।

সব ধরণের লটারির টিকিটের অনুমোদন দেয় অর্থমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত অভ্যন্তরীণ সম্পর্ক বিভাগ। অর্থমন্ত্রণালয়ভুক্ত প্রতিষ্ঠান এনবিআর বলছে, পিবিডিএফ এর এমন কর্মকাণ্ড বৈধ নয়।

সরকারের সব সংস্থা অবৈধ বললেও, তাদের প্রতারণা বন্ধে পদক্ষেপ নিচ্ছে না কেউ-ই।

Leave a Reply