ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৫ ২৩:২৪:১২, শনিবার

Ekushey Television Ltd.

খুনিদের ফেলে যাওয়া আলামতের সূত্র ধরে আটক ৯

সাভার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৫:০০ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯ বুধবার

চলতি মাসে সাভারে পৃথক ৩ হত্যাকান্ড,একটি ডাকাতি ও কেরানীগঞ্জের একটি হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছেন পুলিশ। কেবল খুনিদের ফেলে যাওয়া পায়ের জুতা ও মুঠোফোনের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করেই এই রহস্যে জট খুলেছে বলে জানান পুলিশ। ঘটনাগুলোর সঙ্গে জড়িত ৯ খুনিকে গ্রেফতার করেতে সক্ষম হয়েছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

আটককৃতরা ছিনতাই, ডাকাতিসহ সরাসরি খুনের সাথে জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছেন পুলিশ। এদের মধ্যে অনেকেই পেশাদার খুনীও রয়েছে বলে দাবি পুলিশের।

বুধবার দুপুরে সাভার মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান জানান, গত ২ এপ্রিল সাভারে ভাকুর্তায় মতিউর রহমান নামে এক অটোরিক্সা চালককে খুন করে অটোরিক্সাটি নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে এসে আলামত হিসেবে একটি জুতা উদ্ধার করেন। সেই জুতার সূত্র ধরে মিলন নামে এক খুনীকে সনাক্তের পর আটক করেন পুলিশ। মিলনের কথায় জানা যায়, ঘটনাস্থলে ফেলে যাওয়া জুতা এই চক্রের অপর সদস্য ও খুনি বকুলের।

পরবর্তীতে মুঠোফোনের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে রাতে উত্তরবঙ্গসহ সাভারের একাধিক এলাকা থেকে ৯ জনকে প্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, এই চক্রটি দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাত্রী বেশে অটোরিক্সা ভাড়া নেয়। এরপর নির্জন স্থান দেখে অটোরিক্সা চালককে জখম বা কখনও খুন করে ডাকাতি ও ছিনতাই করে অটোরিক্সা নিয়ে যায়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

বগুড়ার ধুনট থানার সাতটিকড়ি গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে বকুল ভুলু (১৮) ও রাজশাহীর পবি থানার দাদপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আবদুল্লাহ তুষার (১৮)। এঘটনায় জড়িত আরেক আসামী রাসেল বাবু পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

গত ১১ মার্চ সাভারের ঝাউচর এলাকায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে অটোরিক্সা ছিনতাই করা হয়। এঘটনায় জড়িত রাজশাহীর আবদুল্লাহ তুষারসহ রংপুরের গঙ্গাচরা থানার বড়মধর গ্রামের জসিমের ছেলে মিলন (৩৫)। মিলনকে গ্রেফতারের পর লুণ্ঠিত অটোরিক্সা ও ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। একই অভিযুক্তরা ২৭ মার্চ কেরানীগঞ্জ থেকে জাকিরের রিক্সা ভাড়া করে তাকে চাকু দিয়ে খুন করে ছিনতাই করে অটোরিক্সা।

গত ১৪ এপ্রিল সাভার চৌরঙ্গী মার্কেটের সামনে সবজি বিত্রেতা সিরাজুল ইসলামের ছেলে মহসিন (২১) কে কুপিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখে যায় ছিনতাইকারী দলের সদস্যরা। এ অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় মানিকগঞ্জের কানারচর গ্রামের ইউসুফের ছেলে রতন (৩৫), ঢাকার সেনাইল গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে হারুন অর রশীদ (৪০), সিরাজগঞ্জের জামতলা গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে শান্ত (৩৫), সিরাজগঞ্জের জামসিং এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে শাওন (২৭) গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়াও গত ৮ এপ্রিল সাভারে হেমায়েতপুরে দুর্বৃত্তদের হাতে পোশাক শ্রমিক আবুল কাশেম হত্যার ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. সাইদুর রহমান,সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সায়েদ, ওসি (তদন্ত ) সওগাতুল আলম ও ঢাকা জেলার (উত্তর) ডিবি পুলিশের ওসি আবুল বাশারসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

কেআই/

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি