ঢাকা, ২০১৯-০৬-১৮ ৯:২০:৫৮, মঙ্গলবার

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বকাপের আগে ইনজুরির শঙ্কায় বাংলাদেশ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৩০ পিএম, ২৯ মে ২০১৯ বুধবার | আপডেট: ১০:৩৩ পিএম, ২৯ মে ২০১৯ বুধবার

বিশ্বকাপের আগে দুঃসংবাদ পেতে পারেন টাইগার প্রেমিরা। আয়ারল্যান্ড সিরিজ থেকে শুরু হয়েছে ইনজুরির শঙ্কা। মাশরাফি থেকে শুরু করে কিছুদিন আগে সেরে ওঠা সাকিব, রুবেল হোসেন তো আছেনই, কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ ও উদীয়মান পেসার মোহাম্মাদ সাইফুদ্দিনও আছেন ইনজুরির শঙ্কায়। ফলে বিশ্বকাপের আগে দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশের ক্রিকেট।

অধিনায়ক মাশরাফির ইনজুরি নতুন কিছু নয়। ২০১১ সালের বিশ্বকাপে এ কারণেই অংশ নিতে পারেননি তিনি। কিন্তু চোট কাটিয়ে সমস্যা নিয়েই ২০১৫ বিশ্বকাপে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সেবার অন্যান্য খেলোয়াড়দের তেমন ইনজুরির শঙ্কা ছিলনা।

কিন্তু সদ্য শেষ হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডের বৈরি আবহাওয়া বাংলাদেশের ইনজুরিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। তাইতো, এবারে নিজের ইনজুরির শঙ্কা নিয়ে যতটা চিন্তিত তারচেয়ে দলের অন্যান্যদের নিয়ে শঙ্কা তার।
সবশেষ ভারতের বিপক্ষে গতকালের প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে ফেরার পথে পা খানিকটা টেনে হাঁটছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।
কারণ জিজ্ঞেস করতেই জানালেন, পায়ে ব্যথা প্রচণ্ড। এক পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে টান ছিল, এই ম্যাচে টান লেগেছে আরেক পায়েও। তার পাশাপাশি চোট ছোবল দিয়েছে মুস্তাফিজুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনকেও।

আশার বিষয় হলো কারও চোটই খুব গুরুতর নয়। তবে একটু এদিক-সেদিক হলে ঘটতে পারে ভিন্নকিছু। তাইতো বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগে বাংলাদেশ অধিনায়ককে ভাবাচ্ছে নিজের ও সতীর্থদের চোট। এ ম্যাচের আগের দিন ফিল্ডিংয়ের সময় ঊরুর ওপরের দিকে টান লাগে তামিম ইকবালের। যদিও গুরুতর কিছু নয়, তবু সতর্কতা হিসেবে ম্যাচটি খেলেননি বাঁহাতি ওপেনার।

মাশরাফি ডান হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট বয়ে বেড়াচ্ছিলেন আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে। ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচটিতে খেলা অনিশ্চিতও ছিল। ম্যাচের আগে পায়ের অবস্থা একটু ভালো অনুভব করায় খেলতে নামেন। খানিকটা অনুশীলনের তাগিদও ছিল। নতুন বল হাতে নিয়ে টানা দুটি মেডেন নিয়ে শুরু করেন। এক স্পেলে বোলিং করেন টানা ৬ ওভার।
ষষ্ঠ ওভারে গিয়ে টান লাগে বাঁ হ্যামস্ট্রিংয়ে। এই চোটও তার বেশ পুরোনো, মাথাচাড়া দিয়েছে আবার। ৬ ওভারের স্পেল করা জরুরি ছিল কিনা, এই প্রশ্নে বাংলাদেশ অধিনায়ক জানালেন অনুশীলনের তাগিদের কথা।

মাশরাফি বলেন, এসব ক্ষেত্রে আমার আসলে অনেক সময় সমস্যা হয় প্রথম ১-২ ওভার করতে। সেটুকু করতে পারলে পরে আর সমস্যা হয় না। আজকেও হচ্ছিল না। কিন্তু ষষ্ঠ ওভারে টান লেগে গেল। ৪-৫ ওভারে থামতে পারতাম। কিন্তু ওই সময় রোহিত ও কোহলি বেশ অস্থির হয়ে উঠছিল রানের জন্য, শট খেলতে চাচ্ছিল বারবার। মনে হলো, এমন আক্রমণের সামনে প্র্যাকটিস করা জরুরি।

ম্যাচ শেষে হোটেলে ফেরার পর মাশরাফির অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেছেন ফিজিও তিহান চন্দ্রমোহন। এসব ক্ষেত্রে ফিজিওদের পরামর্শ থাকে সাধারণত ৫-৬ দিনের বিশ্রাম। কিন্তু তার আর সুযো কোথায়। ঘরে দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপের মূল পর্বের খেলা। বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচের আগে সময় আছে ৪ দিন। অনেক চোট-আঘাত সয়ে ছুটতে থাকা অধিনায়ক এবারও মাঠে নামবেন যতটা সম্ভব এই কদিনে ফিট হয়ে।

তবে কয়েক দিন হয়তো ঠিকমতো অনুশীলন করতে পারবেন না, এই নিয়ে আক্ষেপ করলেন বারবার। এই চোট তাকে ম্যাচ খেলা থেকে থামাতে পারবে না। কিন্তু অধিনায়ক চিন্তিত অন্যদের চোট নিয়ে।

অপরদিকে, ভারতের বিপক্ষে ৬ ওভারের প্রথম স্পেলের পর আর বোলিং করতে পারেননি সাইফ। শেষের দিকে অন্তত দুটি ওভার করার কথা ছিল তার। কিন্তু পিঠের ব্যথায় মাঠ ছাড়েন তিনি। মাঠেই নিতে হয়েছে ব্যথানাশক। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজেও চোটের কারণে তাকে পাওয়া যায়নি সব ম্যাচে। বোলিং আর না করলেও পরে অবশ্য ব্যাটিং করেছেন সাইফ।

প্রথম স্পেলে দুর্দান্ত বোলিং করা মুস্তাফিজ ১৩৫ থেকে ১৪০ কিলোমিটার গতিতে ধারাবাহিকভাবে বোলিং করলেন সম্ভবত অনেক দিন পর। তবে দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে টান লাগে কাফ মাসলে। খুব খারাপ কিছু নয় এটিও।
তবে চোটের সঙ্গে এই বাঁহাতি পেসারের যে সখ্য, তাতে ঘরপোড়া গরুর সিঁদুরে মেঘ থেকে ভয় পাওয়ার কারণ যথেষ্টই আছে।

এছাড়াও কাঁধের চোটের কারণে মাহমুদউল্লাহর বোলিং করতে না পারার ব্যাপার তো আছেই। সাকিব আল হাসান মাত্রই সেরে উঠলেন পিঠের পেশির চোট থেকে। সদ্য সেরে উঠেছেন রুবেল হোসেনও। সব মিলিয়ে শঙ্কার অবকাশ থেকেই যাচ্ছে।

মাশরাফির ধারণা, অনেক চোটের উপত্তি আয়ার‍্ল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে। সেখানে প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় গা গরম থাকত না বেশিক্ষণ, জমে যেত শরীর। সেই অবস্থায় মাঠে হুট করে বাড়তি কোনো চেষ্টা করতে গেলে অনেক সময় টানা লাগে শরীরের নানা জায়গায়।

আগামী ২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। মাশরাফিরা তাই চাইছেন, সময়টা ভালেই ভালো গেলেই হয়।

এদিকে ইংল্যান্ডে আজ বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় বিশ্বকাপের ১২ তম আসরের পর্দা উঠছে। বিশ্বকাপের উদ্ধোধনী ম্যাচে ৩০ মে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখী হবে দক্ষিণ আফ্রিকা।

আই//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি