ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৫ ২৩:০২:০৬, শনিবার

Ekushey Television Ltd.

রমজানের আগেই বৃদ্ধি পেয়েছে নিত্য পণ্যের দাম

মফিউর রহমান :

প্রকাশিত : ০৩:৪৫ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ শুক্রবার | আপডেট: ০৪:০৯ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ বুধবার

রমজানের আগেই পাইকারী ও খুচরা বাজারে বেড়ে গেছে সব রকম নিত্য পন্যের দাম। কাঁচা বাজরে বেগুন, পেঁপে, পটলসহ প্রায় সব সবজিতে কেজি প্রতি বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা করে। এদিকে মুদিখানায় ছোলা, চিনি, আদা রসুনসহ সব রকম পন্যেও দামও উর্ধ্বমূখী। গেলো সপ্তাহের চেয়ে এ সপ্তাহ মাছের দাম বেশি থাকলেও আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে সব রকম মাংস।

দুদিন পরই পবিত্র শবে-বরাত। দু সপ্তাহ পরেই মাহে রমজান। এরই মধ্যে বাজারে বেড়ে গেছে সব রকম পন্যের দাম।

গেলো সমপ্তাহের চেয়ে প্রায় ২০ থেকে ত্রিশ টাকা বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে বেশিরভাগ সবজি। আর গ্রীষ্মকালীন সবজির দামতো আকাশ ছোয়া। কাকরোল, ধুন্দুল, চিচিঙ্গা বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১২০টাকা কেজি দরে। সরবরাহ কম থাকার অজুহাত দিচ্ছেন বিক্রেতারা। আর ক্রেতারা বলছেন, বাজার মনিটরিংয়ের অভাব।

পেয়াজ, রসুন, আদার পাইকারী বাজারেও একই চিত্র। এখানেও কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশিতে বিক্রি হচ্ছে এ সব পন্য।

এর প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারেও। পেয়াজ রসুনের সাথে বেড়েছে ছোলা, চিনি সহ অন্যান্য পন্যেও দাম। ছোলা প্রকার ভেদে বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৭২ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিলো, গড়ে ৬৫ টাকা। আর মুশুরির ডালে বেড়েছে ৮টাকা, খেসারিতে ৫টাকা, বুটের ডালে ৪টাকা আর চিনিতে বেড়েছে ৫ টাকা। এ জন্য সিন্ডিকেটকে দায়ি করেছেন ক্রেতা বিক্রেতারা।

এদিকে চড়া মাছের বাজারও। গেলো সপ্তাহের চেয়ে প্রায় সব রকম মাছে কেজি প্রতি দাম বেড়েছে  ৩০ থেকে ৫০টাকা।

সব রকম চালের দাম স্থিতিশীল থাকলেও কেজি প্রতি ১০ টাকা বেড়েছে পেলাউয়ের চাল।
আর গেলো সপ্তাহের দামেই বিক্রি হচ্ছে সব রকম মাংস।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে :

এসএ/

 



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি