ঢাকা, ২০১৯-০৬-২৬ ৭:৪৯:২৩, বুধবার

প্যাকেটজাত দুধে পাওয়া গেল অ্যান্টিবায়োটিকের নমুনা

প্যাকেটজাত দুধে পাওয়া গেল অ্যান্টিবায়োটিকের নমুনা

বাজারে প্রচলিত বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৭টি প্যাকেটজাত দুধের নমুনায় পাওয়া গেছে অ্যান্টিবায়োটিকের উপস্থিতি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক এসব পন্যের গুণগত মানের পরীক্ষায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। এছাড়া পাওয়া গেছে গেছে ডিটারজেন্ট ও ফরমালিন। অন্যদিকে নামিদামি ব্র্যান্ডের ঘি, ফলের জুস, মরিচ ও হলুদের গুঁড়া, পাম অয়েল, সরিষার তেল ও সয়াবিন তেলের নমুনার বেশিরভাগই মানহীন।
ইভিএমে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব : ড.হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ইভিএমে যে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়, তা বগুড়া উপ-নির্বাচনের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের সম্মেলন কক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সভায় অংশ গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন। উপ-নির্বাচনে জয়লাভ করায় বিএনপিকে অভিনন্দন জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ইভিএম এ যে সুষ্ঠ ও নিরাপেক্ষ নির্বাচন হয়, তা এই উপনির্বাচনের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হয়েছে। বর্তমান সরকারের সময়ে অতীতের সকল নির্বাচন সুষ্ঠ হয়েছে। আশা করছি বিএনপি আর ইভিএম এর বিরুদ্ধে কথা বলবে না।’ বগুড়া-৬ (সদর) আসনে উপনির্বাচন সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মো. সিরাজ জয়লাভ করেছেন। ইভিএমে ভোট শেষ হওয়ার সাড়ে তিন ঘণ্টার মধ্যে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহাবুব আলম শাহ ফলাফল ঘোষণা করেন। ভারতে বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) সম্প্রচার নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সে দেশে বিটিভি দেখার সকল আয়োজন শেষ হয়েছে। আজ একটি টেকনিক্যাল কমিটি ভারতে যাচ্ছে। কবে থেকে ভারতে বিটিভি’র আনুষ্ঠানিক ভাবে সম্প্রচার শুরু করবো, আমরা জুলাই মাসে দিনক্ষণ ঠিক করবো।’ বিদেশী চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচারের বিষয়ে করা সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে ২০০৬ সালে একটি আইন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই আইন বাস্তবায়নের জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা সেই আইন অনুযায়ি ব্যবস্থা নেব। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোন চ্যানেল বন্ধ করা আমাদের লক্ষ্য নয়। আইন অনুযায়ি যাতে চ্যানেল গুলো চালানো হয় সে ব্যবস্থা করা হবে। বাসস এসি  

২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্যর হার শূন্যে নামবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

সংসদে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, মাত্র কয়েক দশক আগেও বাংলাদেশে অনাহারী-অর্ধাহারী মানুষের যে ছবি ভেসে উঠত এখন আর সেই দৃশ্য চোখে পড়ে না। দেশে ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্যের হার শূন্যের কোটায় আনা সম্ভব হবে। সোমবার (২৪ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শহিদ ইসলামের টেবিলে উত্থাপিত এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। স্পিকারের সভাপতিত্বে বিকাল ৫টায় এ অধিবেশন শুরু হয়। মন্ত্রী জানান, ২০০৫ সালে দারিদ্রের হার ছিল ৪০ শতাংশ এবং ২০১০ এ দারিদ্র্যের হার ৩১.৫ হতে ২০১৮ সালে হ্রাস পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২১ দশমিক ৮ শতাংশে এবং অতি-দারিদ্র্যের হার নেমে এসেছে ১১.৩ শতাংশ। ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছাতে হলে দারিদ্যের হার শূন্যের কোটায় আনতে হবে। উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছতে অর্থনৈতিক ও সামাজিক খাতে বিভিন্ন বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এ লক্ষ্য পূরণে সরকারের পরিকল্পনাসমূহ দেশ হতে শতভাগ দারিদ্র্য দূরীকরণ, সবার জন্য খাদ্য নিশ্চিতকরণসহ নিম্ন আয়ের জনগণের ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ত্বরান্বিত হারে দারিদ্র্য বিমোচন। রাষ্ট্র ও সমাজের আর্থ সামজিক অগ্রগতির কারণে একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশক দারিদ্র্য বিমোচনে অগ্রগতি।’ জিডিপি ও মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারে এমন অনেক নতুন খাত যুক্ত করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী। আরকে//

জামিনে মুক্ত জঙ্গিরা নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, জঙ্গি হামলা প্রতিরোধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি জামিনে মুক্তিপ্রাপ্ত, সাজাপ্রাপ্ত ও আটক জঙ্গিদের নিবিড় নজরদারির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। জঙ্গিবাদ নির্মূলে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির আলোকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করছে। সোমবার জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জঙ্গি দমনে বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশালাইজড ফোর্স গঠনের পাশাপাশি উপযুক্ত প্রশিক্ষণ, অপারেশনাল ও লজিস্টিকস সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়া গোয়েন্দা নজরদারি এবং আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে স্বল্পসময়ের মধ্যে জঙ্গি আস্তানা, জঙ্গিদের অবস্থান শনাক্তপূর্বক গ্রেফতার কার্যক্রম চলমান। জঙ্গিসংশ্লিষ্ট কাজের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত/শনাক্তকরণের সুবিধার্থে এলাকাভিত্তিক ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ এবং বিডি পুলিশ হেল্পলাইন, হ্যালো সিটি ও রিপোর্ট টু র‌্যাব এর অনলাইন অ্যাপস চালু এবং গণসচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। মন্ত্রী বলেন, জঙ্গি দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক এ যাবত অনেকগুলো সফল অভিযান পরিচালিত হয়েছে এবং যেকোনো ধরনের জঙ্গি-সংক্রান্ত বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থা সদা তৎপর রয়েছে, পাশাপাশি সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে প্রচলিত আইন অনুযায়ী জঙ্গিদের গ্রেফতারপূর্বক বিচারের জন্য আদালতে সোপর্দ করার কার্যক্রম অব্যাহত আছে। জঙ্গি হামলা প্রতিরোধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ দমনের সফলতা বিশ্বে রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। এনএম/আরকে

দেড় হাজার কোটি টাকায় ৬টি নতুন জাহাজ সংগ্রহ হয়েছে: খালিদ মাহমুদ

চলতি অর্থ বছরে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন (বিএসসি) ১ হাজার ৬৩৭ কোটি ১৫ লাখ ১৫ হাজার টাকা ব্যয়ে আরো ৬টি নতুন জাহাজ নির্মাণ করছে। তরিকত ফেডারেশনের আনোয়ার হোসেন খানের এক প্রশ্নের জবাবে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী আজ সংসদে এ কথা জানান। তিনি বলেন, এ ৬টি জাহাজের নির্মাণ ব্যয়ের মধ্যে প্রকল্প সাহায্য ১ হাজার ৫২৭ কোটি ৬৬ লাখ টাকা এবং ১০৯ কোটি ৪৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা নিজস্ব তহবিলের অর্থ রয়েছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা লাভের পর দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৭২ সালে ১৪টি সমুদ্রগামী জাহাজ নিয়ে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে দীর্ঘদিনের অবহেলিত বিএসসিকে নতুন আঙ্গিকে তুলে ধরতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ও সহযোগিতায় ৬টি নতুন জাহাজ সংগ্রহ করা হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় আরো নতুন জাহাজ সংগ্রহ করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। তিনি জাতীয় পার্টির লিয়াকত হোসেন খোকার এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-সংরক্ষণ ও পরিচালন বিভাগের অধীনে ছোট বড় মোট ৬০টি জাহাজ রয়েছে। এ সব জাহাজ বিআইডব্লিউটিএ’র উন্নয়নমূলক কাজে ব্যবহার করা হয়। তিনি জানান, এর বাইরে বিআইডব্লিউটিএ’র অধীনে সী-ট্রাক ও ওয়াটারবাসসহ মোট ৩৮টি যাত্রীবাহী জাহাজ রয়েছে। সূত্র-বাসস আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি