ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৪ ৮:৫৮:৪৬, শুক্রবার

বিশ্বকাপ নিয়ে আশার কথা শুনালেন মাশরাফি

বিশ্বকাপ নিয়ে আশার কথা শুনালেন মাশরাফি

৩০ মে পর্দা উঠবে আইসিসি বিশ্বকাপের। এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে আনুষ্ঠানিকতা। বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া দেশগুলোর অধিনায়কদের নিয়ে আইসিসি আয়োজন করে সংবাদ সম্মেলনের। সেখানে অন্যদের সঙ্গে অংশ নেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা।
প্রথম তিন ম্যাচ নিয়েই উদ্বিগ্ন মাশরাফি

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে আগামী ৩০ মে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ১২তম আসরের। আর এই বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে সুখবর পেলেন সাকিব আল হাসান। রশিদ খানকে হটিয়ে আবারও আইসিসির ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠেছেন এই টাইগার ক্রিকেটার। সাকিবের শীর্ষে উঠে আসার মূলে আয়াল্যান্ডে সম্প্রতি হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজে ১৪০ রান ও দুটি উইকেট পাওয়া। এই টুর্নামেন্টে দুটি হাফসেঞ্চুরিও করেন সাকিব। ত্রিদেশীয় সিরিজ ও অন্য টুর্নামেন্ট মিলে ২০০৯ সাল থেকে ছয়টি ফাইনাল খেলেও ট্রফি ছুঁতে পারেনি বাংলাদেশ দল। কিন্তু সপ্তমবার আয়ারল্যান্ডে ফাইনালে এসে লাকি সেভেন ধরা দিয়েছে বাংলাদেশের কাছে। তবে আয়াল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হলেও ইংল্যান্ডে আসন্ন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিরাট ভালো কিছু করা কঠিন হবে বলে মনে করেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। বলেন, আমাদের পক্ষে বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করা কঠিন। কারণ প্রথম তিনটি ম্যাচই মারাত্মক শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলতে হবে। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দু’বার ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে চমকে দেয়। মাশরাফি বুঝতে পারছেন, এই সাফল্য দেশের মানুষকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে। তা ছাড়া ২০১৭-র চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও বাংলাদেশ সেমিফাইনালিস্ট। মাশরাফি বলেন, শেষ পাঁচ-সাত বছরে আমাদের ম্যাচ থাকলেই প্রচুর বাংলাদেশের ভক্ত স্টেডিয়ামে ভিড় করছে। আমাদের জয় দেখা ছাড়া অন্য কিছু ওরা ভাবতেই পারে না। অধিনায়কের আরও কথা, মনে রাখতে হবে, বিশ্বকাপটা কিন্তু একেবারে অন্যরকম টুর্নামেন্ট। হালফিলে ইংল্যান্ডে হওয়া ম্যাচগুলোর দিকে লক্ষ্য করুন। দেখবেন সব ম্যাচেই প্রায় প্রচুর রান উঠেছে। তাই ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে হলে অন্য রকম মানসিকতা নিয়ে মাঠে নামতে হবে। বিশ্বকাপে কখনও চ্যাম্পিয়ন হয়নি বাংলাদেশ। তবে ২০১৫ সালে টাইগাররা কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল। সেই সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে বেশ কয়েকটি ম্যাচে তারা অঘটনও ঘটিয়েছে। এবার বাংলাদেশকে প্রথম তিনটি ম্যাচ খেলতে হবে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও এই মুহুর্তে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বরে থাকা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। একে//

বিশ্বকাপে পাক-ভারত ম্যাচে বাড়তি নিরাপত্তা

পাকিস্তান-ভারত ম্যাচ মানেই বাড়তি কিছু। রাজনৈতিক ছাপ যেন দেশদুটির ক্রিকেটাঙ্গন থেকেও মুক্ত হয়নি। তাইতো আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তান-ভারত ম্যাচে নিরাপত্তায় মাঠে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। যেকোন উত্তেজনাকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় অতিরিক্ত এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার থাকবে বলে জানিয়েছে দেশটির বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের দ্বাদশ আসরের।  আর ১৬ জুন ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গড়াবে পাক-ভারত মহারণ। দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর ম্যাচ ঘিরে ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে আগ্রহের পাশাপাশি বিরাজ করছে তুমুল উত্তেজনা। ইন্দো-পাক ম্যাচের ভেন্যুর দর্শক ধারণক্ষমতা মাত্র ২৫ হাজার। তবে দুই চিরশত্রুর লড়াই প্রত্যক্ষ করার জন্য আবেদন পড়ে প্রায় ৫ লাখ। ব্রিটিশ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেনা মোতায়েন সত্ত্বেও স্টেডিয়ামের আশপাশে লোকজনের চলাফেরা নজরদারি করা হবে। সেই উদ্দেশ্যে ব্রিটিশ পুলিশ স্থানীয় পাকিস্তানি-ভারতীয় সম্প্রদায়ের ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করেছে। রাজনৈতিকভাবে চিরবৈরী দেশ দুটির মধ্যে সবসময় উত্তেজনা বিরাজ করে। পাশাপাশি ইংল্যান্ডে রয়েছে বেশ কিছু পাকিস্তানি-ভারতীয় সম্প্রদায়। ফলে, যেকোন অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে আয়োজক দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। আই//  

দুঃসময় পিছু ছাড়ছে না ক্যাসিয়াসের

দুঃসময় যেন পিছু ছাড়ছে না স্পেনের বিশ্বজয়ী গোলরক্ষক কিংবদন্তি ইকের ক্যাসিয়াসের। হৃদযন্ত্রে সফল অস্ত্রোপচারের পর কেটে গেছে প্রায় তিন সপ্তাহ। ধীরে ধীরে মাঠে ফেরার লড়াই চালাচ্ছেন এই তারকা ফুটবলার। কিন্তু কঠিন সময়ে তার সর্বক্ষণের সঙ্গী ছিলেন যিনি, সেই স্ত্রী সারা কার্বোনেরো আক্রান্ত মারণ ব্যধি ক্যানসারে। তবে যাইহোক, এ ক্ষেত্রেও সাময়িকভাবে কেটে গেছে দুশ্চিন্তার কালো মেঘ। কারণ সম্প্রতি ডিম্বাশয়ে ক্যানসারের সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে কার্বোনেরোর। গত মঙ্গলবার নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজে ক্যাসিয়াসের স্ত্রী নিজেই জানান সে কথা। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে কার্বনেরো বলেন, কয়েকদিন আগেই ডিম্বাশয়ে ম্যালিগন্যান্ট টিউমার ধরা পড়ে। যার সফল অস্ত্রোপচার সম্ভব হয়েছে। একইসঙ্গে তার ইনস্টাগ্রাম বার্তায় অস্ত্রোপচার পরবর্তী সময়ে সবকিছু যে ইতিবাচক দিকেই এগোচ্ছে, তাও জানান ক্যাসিয়াসের স্ত্রী। কার্বোনেরোর কথায়, সবকিছু খুব ভালো দিকেই এগোচ্ছে। আমি ভাগ্যবান যে পর্যাপ্ত সময় পেয়েছি। তবে এখনও আগামী কয়েকমাস আমাকে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য। 

‘ম্যাজিক্যাল চাকমা’ কিশোরী মনিকা

বাংলাদেশের পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি। সে জেলার লক্ষ্মীছড়িতে জন্ম এক তুখোড় কিশোরী নারী ফুটবলারের। শুধু তুখোড় নয়, সে এক  ‘ম্যাজিক্যাল চাকমা’। গল্পটা তাহলে বলাই যাক- বিশ্বের সর্বোচ্চ ফুটবল নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফা প্রতি সপ্তাহে ফুটবলভক্তদের পছন্দে সপ্তাহের সেরা কোনো এক ফুটবল মুহূর্তের ছবি, ভিডিও কনটেন্ট বা ফুটবলসংক্রান্ত কোনো এক অনন্য মুহূর্ত চেয়ে থাকে। বিশ্বের ফুটবলভক্তরা হ্যাশট্যাগ, # WeLiveFootball -এর মাধ্যমে ফিফার কাছে পৌঁছে দেয় তাদের পছন্দের কনটেন্টটি। তার মধ্যে যেকোনো পাঁচটি সেরা মুহূর্ত বাছাই করে প্রকাশ করে ফিফা। এই পছন্দের তালিকায় বাংলাদেশ কোনোকালেই জায়গা করে নিতে পারেনি। তবে এ বছর প্রথমবারের মতো ফিফার এই ‘ফ্যানস ফেভারিট’ কনটেন্টে স্থান পায় বাংলাদেশ। আর তা সম্ভব হয়েছে খাগড়াছড়ির কিশোরী, বাংলাদেশি নারী ফুটবলার মনিকা চাকমার বদৌলতে। মনিকা বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের হয়ে খেলেছে। মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে তিন গোলে জেতা এই ম্যাচে অসাধারণ একটি গোল করে চমক দেখায় মনিকা চাকমা। আর এই গোলের কল্যাণেই সে জায়গা করে নেয় ফিফার ‘ফেভারিট ফাইভ’-এ। ‘ফ্যানস ফেভারিট’ তালিকায় প্রকাশিত মনিকার গোলটিকে ফিফা নাম দেয়, ‘ম্যাজিক্যাল চাকমা’ নামে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কোলে বেড়ে ওঠা ছোট্ট মনিকার বাবা বিন্দু কুমার চাকমা পেশায় কৃষক। তার মা রানী বালা চাকমা একজন গৃহিণী। এই কৃষক পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য মনিকা। পাঁচ বোনের মধ্যে মনিকার আরেক বোন অনিকা চাকমা। সেও ফুটবল বেশ পছন্দ করতো। কিন্তু অনিকা বেশিদূর না খেললেও খেলা ছাড়েনি মনিকা। মাঠ আর বলের সঙ্গে বন্ধুত্ব তার। শৈশবে কাকাতো ভাই কিরণ চাকমা ও সৃজন চাকমার সঙ্গে মাঠে ফুটবল খেলতে নামত। সেই থেকেই ফুটবল খেলায় হাতেখড়ি। এরপর বন্ধুদের সঙ্গে খেলেছে, পাড়ার ছেলেদের সঙ্গে খেলেছে, খেলেছে স্কুলেও। কখনো ছেলে-মেয়ে একসঙ্গে খেলেছে, কখনো খেলা হয়েছে ছেলে-মেয়ে আলাদা দলে। স্কুলের মাঠে মনিকার খেলার চমক টের পান ফুটবল কোচ বীর সেন স্যার। তিনি বুঝতে পারেন এই কিশোরীর মধ্যে কিছু একটা ব্যাপার আছে। মনিকার বাবা মেয়ের ফুটবল নিয়ে মেতে থাকা পছন্দ করতেন না। কিন্তু পাশে ছিলেন স্যার বীর সেন। তিনিই মনিকাকে প্রস্তুত করলেন বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের জন্য। প্রথম বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় টুর্নামেন্টে ফুটবল খেলেছে খাগড়াছড়ির মরাচেংগী স্কুলের হয়ে। পরে খেলেছে রাঙামাটি ঘাগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের জার্সি গায়ে। সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের কথা মনিকার মনে থাকবে সব সময়। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামের ৩-০ গোলে ভারতকে হারায় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। খুদে এই ফুটবলারের ইচ্ছা দেশের জন্য আরো বড় জয় ছিনিয়ে আনার। বাংলাদেশের নারী ফুটবলকে কী করে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরবে, সে চিন্তাই এখন তার। এসএ/  

তামিমের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনিল কুম্বলে

তামিম ইকবাল কোনও দলের বোলিং লাইনআপ ভেঙে চুরমার করার ক্ষমতা রাখে বলে মনে করেন ভারতের সাবেক লেগ স্পিনার ও কোচ অনিল কুম্বলে। অনিল বলেন, বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ওপেনার তামিম। বাংলাদেশের সামর্থ্য নিয়ে সংশয়ের কোনও জায়গা নেই মন্তব্য করে এই কিংবদন্তি বলেন, টাইগাররা এবার বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলবে। কারণ তামিম, সাকিব ও মুশফিকুর রহিম বছরের পর বছর ভালো ক্রিকেট খেলে আসছে। তবে নকআউট ম্যাচে বাংলাদেশ নিজেদের মেলে ধরতে পারে না বলে উল্লেখ করলেন অনিল। বলেন, ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল ও ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে সেটা দেখা গেছে। তাই বিশ্বকাপে এই বাধা পার হওয়াটাই বাংলাদেশের জন্য আসল চ্যালেঞ্জ। একে//

আমার জন্য সব থেকে চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপ: কোহলি

বিশ্বকাপ খেলতে লন্ডন উড়ে যাওয়ার আগে মঙ্গলবার মুম্বাইয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রী। ৩০ মে থেকে শুরু এ বারের বিশ্বকাপ। তার আগে দুটো প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন বিরাট কোহলিরা।  গত দু’বছর যেভাবে সেরাটা দিয়ে নিজেদের ক্রমশ বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করেছে ভারতীয় দল তার প্রমান পর পর সিরিজেই পাওয়া গিয়েছে। তাই বিশেষজ্ঞরা এই ভারতীয় দলকে অন্যতম বিশ্বকাপের দাবিদার হিসেবে দেখছেন। বিরাট কোহলি বলেন ‘‘বিশ্বকাপে সব রকমের রানই হতে পারে, তবে সেখানে বেশকিছু বেশিরানের ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।`` তিনি আরও বলেন, ‘‘এটা সব থেকে বেশি চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপ হতে চলেছে। যে কোনও দল যে কোনও দলকে চমকে দিতে পারে। দলকে দ্রুত পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে।” এটা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই বিরাট কোহলির ভারতীয় দলের ব্যাটিং লাইনআপ যে কোনও প্রতিপক্ষের কাছে চ্যালেঞ্জের। সেই তালিকায় যখন রয়েছেন বিরাট কোহলি তখন তার মান দ্বিগুন হয়ে যায়। সেই কোহলির নেতৃত্বেই আবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখছে গোটা ভারত। শুরু হয়ে গিয়েছে কাউন্ট ডাউন। অনেকেই ইতোমধ্যে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে পৌঁছে গিয়েছে ইংল্যান্ডে। কোচ রবি শাস্ত্রী দলের ভূমিকা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। তিনি বলেন, ‘‘আমরা যদি আমাদের ক্ষমতা অনুযায়ী খেলতে পারি তা হলে বিশ্বকাপ এখানে আসবে।`` এর সঙ্গে তিনি জুড়ে দেন, ‘‘পিচ হয়তো ফ্ল্যাট হবে ইংল্যান্ডে। কিন্তু পরিস্থিতির উপর অনেক কিছু নির্ভর করবে। লন্ডনে গেলে বিভিন্ন রকম পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।`` দলের প্রশংসা করে শাস্ত্রী বলেন, ‘‘এটা একটা অভিজ্ঞ দল, সম্পূর্ণ একটা ইউনিট যারা একে অপরকে সাহায্য করে।” তথ্যসূত্র: এনডিটিভি এমএইচ/

বিশ্বকাপ ক্রিকেটের পূর্ণাঙ্গ সময়সূচি

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ১২তম আসরের। আর আগামী ১৪ জুলাই শেষ চারের সেরা দুদল ফাইনালে শিরোপার জন্য লড়বে। সব মিলিয়ে ৪৮টি ম্যাচ হবে ৪৬ দিনের টুর্নামেন্টে। ইতিমধ্যে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোর সময়সূচি প্রকাশ করেছে আইসিসি। চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ক্রিকেট বিশ্বকাপের পূর্ণাঙ্গ সূচি- তারিখ বাংলাদেশ সময় ম্যাচ ভেন্যু ৩০ মে বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা ওভাল ৩১ মে বিকাল সাড়ে ৩টা উইন্ডিজ-পাকিস্তান নাটিংহাম ১ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা নিউজিল্যান্ড-শ্রীলংকা কার্ডিফ ১ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা আফগানিস্তান-অস্ট্রেলিয়া ব্রিস্টল (দি/রা) ২ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ওভাল ৩ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড- পাকিস্তান নাটিংহাম ৪ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা আফগানিস্তান-শ্রীলংকা কার্ডিফ ৫ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সাউদাম্পটন ৫ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ওভাল (দি/রা) ৬ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা অস্ট্রেলিয়া-উইন্ডিজ নাটিংহাম ৭ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা পাকিস্তান-শ্রীলংকা ব্রিস্টল ৮ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড কার্ডিফ ৮ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা আফগানিস্তান-নিউজিল্যান্ড টন্টন (দি/রা) ৯ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-অস্ট্রেলিয়া ওভাল ১০ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা দক্ষিণ আফ্রিকা-উইন্ডিজ সাউদাম্পটন ১১ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ব্রিস্টল ১২ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান টন্টন ১৩ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-নিউজিল্যান্ড নাটিংহাম ১৪ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ সাউদাম্পটন ১৫ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা দক্ষিণ আফ্রিকা-আফগানিস্তান কার্ডিফ (দি/রা) ১৬ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-পাকিস্তান ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ১৭ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-উইন্ডিজ টন্টন ১৮ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-আফগানিস্তান ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ১৯ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা নিউজিল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা এজবাস্টন ২০ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া নাটিংহাম ২১ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-শ্রীলংকা হেডিংলি ২২ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-আফগানিস্তান সাউদাম্পটন ২২ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা উইন্ডিজ-নিউজিল্যান্ড ওল্ড ট্র্যাফোর্ড (দি/রা) ২৩ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকা লর্ডস ২৪ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-আফগানিস্তান সাউদাম্পটন ২৫ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া লর্ডস ২৬ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তান এজবাস্টন ২৭ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা উইন্ডিজ-ভারত ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ২৮ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা শ্রীলংকা-দক্ষিণ আফ্রিকা ডারহাম ২৯ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া লর্ডস (দি/রা) ২৯ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা পাকিস্তান-আফগানিস্তান লিডস ৩০ জুন বিকাল সাড়ে ৩টা ভারত-ইংল্যান্ড এজবাস্টন ১ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা শ্রীলংকা-উইন্ডিজ ডারহাম ২ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-ভারত এজবাস্টন ৩ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড ডারহাম ৪ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা আফগানিস্তান-উইন্ডিজ হেডিংলি ৫ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ-পাকিস্তান লর্ডস ৬ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা শ্রীলংকা-ভারত হেডিংলি ৬ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা ওল্ড ট্র্যাফোর্ড (দি/রা) ৯ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা প্রথম সেমিফাইনাল (১-৪) ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ১০ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা রিজার্ভ ডে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ১১ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা দ্বিতীয় সেমিফাইনাল এজবাস্টন ১২ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা রিজার্ভ ডে এজবাস্টন ১৪ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা ফাইনাল লর্ডস ১৫ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টা রিজার্ভ ডে লর্ডস  

বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন করল পাকিস্তান

বিশ্বকাপে সরফরাজ-আমিরদের জার্সি উন্মোচন করল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। মঙ্গলবার নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার পেজে এ জার্সি প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় তা ভাইরাল হয়ে গেছে। চিরাচরিতভাবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জার্সিতে প্রাধান্য পেয়েছে নীল রঙের সমারোহ। এবারের রঙটি আরও গাঢ় ও উজ্জ্বল। জার্সির পেছনে রয়েছে খেলোয়াড়দের নাম ও নম্বর। এগুলো সাদা রঙের। এর ওপরে আছে তারকাচিহ্নিত দেশের পতাকা। এ ছাড়া সরফরাজদের জার্সির সামনে বুকের বামপাশে রয়েছে একটি তারকা এবং ডানপাশে বিশ্বকাপের অফিসিয়াল লোগো। ক্যাপও জার্সির আদলে তৈরি। এতে আছে গাঢ় ও উজ্জ্বল নীল রঙের ছোঁয়া। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের। ১৪ জুলাই ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে এ মেগা ইভেন্টের। আর ৩১ মে ট্রেন্ট ব্রিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযানে নামবে পাকিস্তান।

বিশ্বকাপ দলে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন মাশরাফি

বিশ্বকাপ মিশনে দলের সঙ্গে যোগ দিতে বুধবার সকালে ইংল্যান্ডের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এদিন, সকাল দশটায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে চড়ে বসেছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। তবে বিমানে চড়ার আগে সেভাবে কথা বলেননি মাশরাফি। সৌজন্যতা রক্ষায় যা একটু বলেছেন, তার মধ্যেই দলের জন্য দোয়া চেয়ে নিয়েছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে জিতে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছে বাংলাদেশ দল। টাইগারদের আত্মবিশ্বাসও তুঙ্গে। তাই এই আত্মবিশ্বাস বিশ্বকাপে কতটা কাজে দেবে? এ বিষয়ে মাশরাফি মনে করিয়ে দিলেন, দুটি আলাদা টুর্নামেন্ট। তবে দল যেহেতু ভালো অবস্থায় আছে, ভালো করার আশা তারও। এর আগে বিশ্বকাপ মিশনে অংশ নিতে আয়ারল্যান্ড থেকে ইংল্যান্ডে যায় টাইগার বাহিনী। স্থানীয় সময় গত শনিবার সন্ধ্যায় ইংল্যান্ডে পৌঁছায় সাকিব, তামিমরা। শুধু অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ছাড়া বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সব সদস্যই পাড়ি জমিয়েছেন বিশ্বকাপের দেশে। আর ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষ করে দেশে ফেরার পরই মাশরাফির কাছে দল নিয়ে অনেক কিছু জানতে চেয়েছিলেন সাংবাদিকরা। তখন টাইগার দলপতি সেসব এড়িয়ে যান। যেহেতু পুরো দল আসেনি, তিনি ব্যক্তিগতভাবে চারদিনের ছুটিতে দেশে ফেরেন, তাই দল নিয়ে কথা বলা ঠিক হবে না বলেই যুক্তি দেন নড়াইল এক্সপ্রেস। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের। তবে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচটি লড়বে ২ জুন ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অপরিবর্তিত দল নিয়েই খেলবে বাংলাদেশ। কারণ বিশ্বকাপের জন্য আগে যে দল দেওয়া হয়েছিল, সেটাই চূড়ান্ত করেছে বিসিবি। দল চূড়ান্ত করা প্রসঙ্গে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘বর্তমানে ইংল্যান্ডে অবস্থানকারী ১৫ জনের দলের প্রতি আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে। স্কোয়াডের প্রতিটি খেলোয়াড়ই সর্বোচ্চ পর্যায়ে তাদের ভালো পারফর্ম করতে পারার সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছে এবং মূলত এই কারণেই আমরা তাদেরকে বেছে নিয়েছি। বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দল মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, রুবেল হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী। স্ট্যান্ডবাই ইয়াসির আলি রাব্বি ও নাইম হাসান।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল চূড়ান্ত

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অপরিবর্তিত দল নিয়েই খেলবে বাংলাদেশ। দল চূড়ান্ত করার জন্য ২৩ মে পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় আইসিসি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নতুন করে আর কোনো পরিবর্তন আনার প্রয়োজন মনে করেনি বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের জন্য আগে যে দল দেয়া হয়েছিল, সেটাই চূড়ান্ত করেছে বিসিবি। গুঞ্জন ছিলো আবু জায়েদ চৌধুরী রাহীকে বাদ দিয়ে তাসকিন আহমেদকে বিশ্বকাপ দলে নেয়ার। কিন্তু ত্রিদেশীয় সিরিজে দুর্দান্ত বোলিং করায় দলে টিকে গেছেন রাহী। দল চূড়ান্ত করা প্রসঙ্গে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘বর্তমানে ইংল্যান্ডে অবস্থানকারী ১৫ জনের দলের প্রতি আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে। স্কোয়াডের প্রতিটি খেলোয়াড়ই সর্বোচ্চ পর্যায়ে তাদের ভালো পারফর্ম করতে পারার সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছে এবং মূলত এই কারণেই আমরা তাদেরকে বেছে নিয়েছি।’ বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, রুবেল হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী। স্ট্যান্ডবাই: ইয়াসির আলি রাব্বি ও নাইম হাসান। সূত্র: ইএসপিএনক্রিকইনফো

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি