ঢাকা, ২০১৯-০৬-২৬ ৭:৫৫:৪৯, বুধবার

গভীর রাতে অর্জুন-মালাইকা কোথায় যাচ্ছেন?

গভীর রাতে অর্জুন-মালাইকা কোথায় যাচ্ছেন?

চোখে কালো চশমা। কাঁধে ব্যাগ। হাতে টানা ট্রলি। মুম্বাই বিমানবন্দরের ভিতরে ঢুকে গেলেন একটি যুগল। তারা আর কেউ নয় অর্জুন কাপূর এবং মালাইকা আরোরা। কিন্তু নিশ্চুপে কোথায় গেলেন, তা নিয়ে অবশ্য মুখ খোলেননি। যদিও মালাইকা বা অর্জুন কেউই প্রেমের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেন না। মালাইকার সঙ্গে সম্পর্কে তিনি ভাল আছেন বলে জানিয়েছিলেন অর্জুন। যদিও বিয়ে কবে, তা নিয়ে মুখ খোলেননি। ডিনারে হোক বা পার্টিতে একসঙ্গে দেখা যায় এই যুগলকে। বেশ কয়েকবার একসঙ্গে ছুটি কাটাতেও গিয়েছেন। এ বারও কি তেমনই কোনও ছুটির প্ল্যান ? ১৯৯৮ সালে অভিনেতা আরবাজ খানকে বিয়ে করেন মালাইকা। তাঁদের এক ছেলেও রয়েছে। কিন্তু ২০১৭ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের। অর্জুনের সঙ্গে সম্পর্কের জেরেই মালাইকা-আরবাজের সম্পর্ক ভেঙে গিয়েছিল বলে জল্পনা ছড়িয়েছিল ইন্ডাস্ট্রিতে। যদিও মালাইকা-আরবাজ দু’জনেই তা অস্বীকার করেন। বিচ্ছেদের পরও আরবাজের পরিবারের সঙ্গে নাকি সুসম্পর্ক রয়েছে মালাইকার। এনএম/এসি  
নুসরাতের স্বামীকে জড়িয়ে ধরলেন মিমি!

ব্যবসায়ী নিখিল জৈনকে বিয়ে করেছেন টালিউড অভিনেত্রী ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান। গত ১৯ জুন তুরস্কের বোদরুমের ‘সিক্স সেন্সেস কাপলাংকায়া’ হোটেলে জাকজঁমক আয়োজনের মাধ্যমে বিয়ে হয় তাদের। এই অনুষ্ঠানে টালিউড থেকে একমাত্র আমন্ত্রিত ছিলেন নুসরাতের প্রিয় বান্ধবী মিমি চক্রবর্তী। বেস্ট ফ্রেন্ডের বিয়ে বলে কথা। তাতে আনন্দ করবেন না, হয় নাকি? ব্যতিক্রম নন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীও। নুসরাত এবং নিখিলের সঙ্গে আলাদা আলাদা ছবি শেয়ার করেছেন মিমি। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আ জার্নি টু রিমেম্বার। এক সঙ্গে সুখে থাক তোমরা।’ ‘এনজেঅ্যাফেয়ার’। এটাই ছিল নিখিল এবং নুসরাতের বিয়ের সোশ্যাল ওয়ালে ব্যবহৃত হ্যাশট্যাগ। মূল অনুষ্ঠানের ডিজাইনেও ব্যবহার হয়েছে এই বিশেষ হ্যাশট্যাগ। আরেকটি ছবিতে দেখা যায়, নুসরাতের স্বামী নিখিলকে জড়িয়ে ধরে ছবি তুলেছেন টালিউড অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। পেশায় ব্যবসায়ী নিখিলের সঙ্গে নুসরাতের কাজের মাধ্যমেই আলাপ। পরে তা গড়ায় গভীর বন্ধুত্বে। দুই বাড়ির সম্মতিতেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দম্পতি। ২৫ জুনের পরে আইনি মতে বিয়ে সারবেন নুসরাত-নিখিল।

মাইকেল জ্যাকসনের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

‘পপ কিং’ মাইকেল জ্যাকসনের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ মঙ্গলবার। স্নায়ু শিথিল করতে মাত্রাতিরিক্ত প্রপোফল সেবনে ২০০৯ সালের ২৫ জুন ৫০ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়েছিল। বিশ্বের সবচেয়ে সফল সেলিব্রেটি মাইকেল জ্যাকসন একজন মার্কিন সংগীতশিল্পী, গীতিকার, নৃত্যশিল্পী, অভিনেতা, সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী। ব্যক্তিজীবনে বিতর্কিত পপসম্রাট বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষাপটে চার দশকেরও বেশি সময় সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বৈশ্বিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছেন। ১৯৫৮ সালের ২৯ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রে আফ্রিকান-আমেরিকান একটি পরিবারে জন্ম হয়েছিল মাইকেল জ্যাকসনের। মাইকেলের বাবার নাম জোসেফ ওয়াল্টার জ্যাকসন। জ্যাকসন পরিবারের ৭ম সন্তান মাইকেল। চার ভাইকে সঙ্গে নিয়ে মাত্র ৬ বছর বয়সে পেশাদার জগতে পা রাখেন তিনি। এককভাবে কাজ করেন ৭১ সালে। তবে বিশ্বজুড়ে উন্মাদনা ছড়ান আরও এগার বছর পর। ১৯৮২ সালে তার থ্রিলার অ্যালবাম ভেঙে দেয় পৃথিবীর সব রেকর্ড। অলটাইম হিটসের তালিকায় আছে - অফ দ্য ওয়াল (১৯৭৯), ব্যাড (১৯৮৭), ডেঞ্জারাস (১৯৯১) এবং হিস্টরি (১৯৯৫)। সর্বকালের সবচেয়ে সফল বিনোদন তারকা হিসেবে গিনেস বুকেও জায়গা পেয়েছেন তিনি। প্রায়শই তাকে পপ সঙ্গীতের রাজা হিসেবে আখ্যায়িত করা হয় অথবা, সংক্ষেপে তাকে এমজে নামে অভিহিত করা হয়।

ইন্ডাস্ট্রি চাঙ্গা করতে শাকিবের নতুন পরিকল্পনা

দীর্ষদিন থেকে দর্শক খরায় ভুগছে ঢাকাই সিনেমা। শত প্রচেষ্টার পরও আগের মত দর্শককে কোনভাবেই যেন হলমুখী করা যাচ্ছে না। ফলে, চরম সংকটে পড়েছে দেশের সিনেমার বাজার। সম্মান বাঁচাতে প্রযোজকরা নিজেদের সফল দাবি করলেও বাস্তব চিত্রটা দেখা গেছে ভিন্ন। এমনকি অনেকে লগ্নির টাকাই ফেরত পাননি। দেশের চলচ্চিত্রের এমন বেহাল দশায় নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছেন অনেক ডাকসাইটে প্রযোজক। শখের বশে যারা এ জগতে পা রেখেছিলেন, তারাও হতাশ হয়ে ফিরে গেছেন। ফলে, বিপর্যস্ত দেশের চলচ্চিত্র। তবে আশার কথা হলো, এতসব হতাশা ও সংকটাবস্থায় এখনো টিকে আছেন বাংলা সিনেমার কিং খান খ্যাত শাকিব খান। এই মন্দার বাজারেও প্রতিবছর তার একাধিক সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। ব্যবসায়িক সফলও পাচ্ছেন প্রযোজকরা। তবে, লড়াইটা যখন একাই করছেন, তখন এগিয়ে যাওয়াটা তার জন্য অনেকটা কঠিনই বলা চলে। দীর্ঘ দিনের ক্যারিয়ারে সচেতন এই নায়ক নিজের ইমেজের যত্ন নিয়েছেন। ধরে রেখেছেন ক্রেজ। তাই তার ভাগ্যে এখনো দর্শক মেলে। আর সেই ভাগ্যের উপর ঝুঁকি নিয়ে অনেক প্রযোজক এখনো বাজি ধরছেন সিনেমার। পাশাপাশি নিজেও প্রযোজনা করে থাকেন শাকিব। ২০১৪ সালে ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’ ছবি দিয়ে প্রযোজক শাকিবের যাত্রা। এরপর পাঁচ বছর বিরতি নিয়ে চলতি বছরের গেল ঈদুল ফিতরে তিনি ‘পাসওয়ার্ড’ বানিয়েছেন নিজের এসকে ফিল্মসের ব্যানারে। এবার আর বিরতিতে যাচ্ছেন না দেশসেরা এ নায়ক। ইন্ডাস্ট্রি চাঙ্গা রাখতে প্রযোজক হিসেবে তিনি নিয়মিত হবার পরিকল্পনা করেছেন। ঘোষণা দিয়েছেন, বছরে তিন-চারটি ছবি তিনি প্রযোজনা করবেন। সেই ঘোষণা অনুযায়ী ‘পাসওয়ার্ড’ নির্মাণের পরপরই আরও তিন ছবি নিয়ে মাঠে নামলেন তিনি।বর্তমানে শাকিব খান জাকির হোসেন রাজুর ‘মনের মত মানুষ পাইলাম না’ ছবির শুটিং করছেন। এটি প্রযোজনা করছে দেশ মাল্টিমিডিয়া। এই ছবির পরপরই তিনি শুরু করবেন তিনটি নতুন ছবির শুটিং। সেগুলো হলো ‘বীর’, ‘ফাইটার’ এবং ‘পাসওয়ার্ড ২’। শাকিবের সঙ্গে নায়িকা বুবলীকে নিয়ে তিনটি ছবি যথাক্রমে পরিচালনা করবেন কাজী হায়াৎ, বদিউল আলম খোকন এবং মালেক আফসারী। আর তিনটি ছবির প্রযোজনাতেই থাকছে শাকিবের এসকে ফিল্মস। রোববার দুপুরে এফডিসিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তিনটি ছবির ঘোষণা দিয়ে শাকিব জানান, শিগগিরই তিনটি ছবির শুটিং শুরু হবে। আর ছবিগুলো আসছে কোরবানির ঈদসহ চলতি বছরের বিভিন্ন দিবস উপলক্ষে মুক্তি দেয়া হবে। এতো সংকট মূহুর্তেও নিজের অভিনয় দিয়ে দর্ষক ধরে রেখেছেন শাকিব। এবার প্রযোজক হিসেবে কতটুকু সফল হতে পারেন সেটাই দেখার অপেক্ষায় সিনেমাপ্রেমীরা। আই/আরকে

উড়োজাহাজ থেকে লাফ দিলেন মেহজাবীন! (ভিডিও)

বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। দুবাইয়ের আকাশ থেকে দিয়েছেন ঝাঁপ! শহরে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ভিউ প্লাম আইসল্যান্ডের আকাশে এই ডাইভটি দিয়েছিলেন ছোট পর্দার বেশ জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। ঈদের পর তিনি দুবাইয়ে যান অভিনেত্রী। তখনই এই ডাইভে অংশ নেন। এমন মজার আর অ্যাডভেঞ্জারাস ডাইভিং নিতে যাওয়ার জন্য বাড়তি সাহস দরকার হয়। যেটি করেছেন মেহজাবিন। মেহজাবীন বলেন,‌ ‘অবশেষে এটা করতে পেরেছি। এটা সত্যিই অসাধারণ। স্কাই ডাইভিংয়ের জন্য দুবাই-ই সেরা।’ এদিকে স্কাই ডাইভিংয়ের পুরো একটি ভিডিও তৈরি করেছেন এর সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। সেখানে মেহজাবীনের প্রস্তুতি, শুরু থেকে মাটিতে নামা পর্যন্ত পুরো ঘটনা দেখানো হয়। এনএম  

পর্দায় ফিরছে আমির-কারিনা ম্যাজিক!

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় ছবি ‘থ্রি ইডিয়টস’। এ ছবিতে আমির খান ও কারিনা কাপূরকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল। ছবিতে আমির-কারিনার কেমিস্ট্রি গল্পের প্রবাহে আলাদা একটা মাত্রা যোগ করেছিল। দর্শকরা পছন্দ করেছিলেন বেশ। এবার আরও একবার পর্দায় আসছে আমির খান-কারিনা কাপুর জুটি। আগেই জানা গিয়েছিল, হলিউডের বিখ্যাত ছবি ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর হিন্দি রিমেক করছেন আমির খান। ছবির নাম ‘লাল সিং চাড্ডা’। এবার প্রকাশ্যে এল আমিরের নায়িকার নাম। জানা যাচ্ছে, কারিনা কাপুর এই ছবিতে অভিনয় করতে সম্মতি দিয়েছেন। ব্যস্ততা সত্বেও তিনি কিছুদিন আগেই মুম্বই ফিরেছিলেন একটি টিভি শো-র শ্যুটিং-এর জন্য। তারপর ফের লন্ডন উড়ে যান। কারিনার পরবর্তী ছবি ‘আংরেজি মিডিয়াম’-এর শ্যুটিং চলছে লন্ডনে। এই নিয়ে তৃতীয়বার আমির ও কারিনা একসঙ্গে কোনও ছবিতে অভিনয় করতে চলেছেন। এর আগে তাদের দেখা গিয়েছিল ‘থ্রি ইডিয়টস’ ও ‘তালাশ: দ্য আন্সার লাইস উইদিন’ ছবিতে। প্রসঙ্গত, ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত `ফরেস্ট গাম্প` ছবিতে অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস যে চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন আমিরও অভিনয় করবেন সেই একই চরিত্রে। ‘ফরেস্ট গাম্প’ ছবিটির পরিচালনা করেছিলেন রবার্ট জেমেকিস। আমির অভিনীত হিন্দি রিমেক ‘লাল সিং চাড্ডা’-র পরিচালনার দায়িত্বে আছেন আদভেট চন্দন। তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/    

শিমলায় সারা-কার্তিক কী করছে?

সারা আলি খান এবং কার্তিকের আরিয়ানের সম্পর্ক নিয়ে বলিউডে বেশ কিছু দিন ধরেই আলোচনা হচ্ছে। সারা প্রকাশ্যেই কার্তিকের সঙ্গে ডেট করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন। তবে সবিনয়ে তা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কার্তিক। সে সব ঘটনার পর ঠিক কোন জায়গায় রয়েছে এই জুটির কেমিস্ট্রি, তা নিয়ে জল্পনা কম নয়। এর মধ্যেই শিমলায় দেখা গেল যুগলকে। মূলত ইমতিয়াজ আলির পরের ছবির শুটিংয়েই শিমলা গিয়েছেন কার্তিক এবং সারা। শুটিংয়ের একটি ভিডিও সোশ্যাল ওয়ালে ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, কৌতূহলী দর্শকের থেকে দূরে থাকতেই ব্যান্ডেনা এবং ওড়না দিয়ে মুখ ঢেকে রেখেছেন কার্তিক এবং সারা। সারা প্রকাশ্যে কার্তিকের সঙ্গে ডেটে যাওয়ার কথা বলতে অবাক হয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু ইমতিয়াজ তার নতুন ছবির কাস্টের কথা ঘোষণা করার পর কেউ কেউ অবশ্য সারার ঘোষণাকে প্রোমোশন স্ট্র্যাটেজিও বলেছিলেন। আসল সত্যিটা কী, তা নিয়ে অবশ্য মুখ খোলেননি সারা। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার এমএইচ/  

অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি সেলিম সম্পাদক নাসিম

দেশের টেলিভিশন অভিনয় শিল্পীদের সংগঠন অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন শহীদুজ্জামান সেলিম এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন আহসান হাবিব নাসিম। নাসিম টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন। শুক্রবার রাতে এ নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ৩২৫ ভোট পেয়ে সভাপতি সেলিম অভিনেতা তুষার খান ও মোহাম্মাদ মিজানুর রহমানকে পরজিত করেছেন। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাসিম পেয়েছেন ৪২২ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান। সহ-সভাপতি পদে নির্বাচিত তিনজন হয়েছেন, আজাদ আবুল কালাম, ইকবাল বাবু ও তানিয়া আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের জন্য দুটি পদে নির্বাচিত হয়েছেন রওনক হাসান এবং আনিসুর রহমান মিলন। অর্থ সম্পাদক পদে মোহাম্মাদ নূর এ আলম নয়ন, দফতর সম্পাদক শেখ মেরাজুল ইসলাম, অনুষ্ঠান সম্পাদক রাশেদ মামুন অপু, আইন ও কল্যাণ সম্পাদক শামীমা তুষ্টি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক প্রাণ রায়, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক সুজাত শিমুল নির্বাচিত হয়েছেন। নতুন মেয়াদে কমিটির ৭টি কার্য নির্বাহী সদস্য পদে জয়ী হয়েছেন, নাদিয়া আহমেদ, সেলিম মাহবুব, জাকিয়া বারী মম, বন্যা মির্জা, মনিরা বেগম মেমী, শামস সুমন ও রাজীব সালেহীন। দ্বিবার্ষিকি নির্বাচন চলে সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। ৬০৬ জন ভোটারের মধ্যে ৫১৮জন ভোটাধিকার প্রদান করেন। এ নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন খায়রুল আলম সবুজ, মাসুম আজিজ এবং বৃন্দাবন দাশ। এমএস/কেআই 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি