ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৪ ৯:১৬:০০, শুক্রবার

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল চূড়ান্ত

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল চূড়ান্ত

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অপরিবর্তিত দল নিয়েই খেলবে বাংলাদেশ। দল চূড়ান্ত করার জন্য ২৩ মে পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় আইসিসি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নতুন করে আর কোনো পরিবর্তন আনার প্রয়োজন মনে করেনি বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের জন্য আগে যে দল দেয়া হয়েছিল, সেটাই চূড়ান্ত করেছে বিসিবি। গুঞ্জন ছিলো আবু জায়েদ চৌধুরী রাহীকে বাদ দিয়ে তাসকিন আহমেদকে বিশ্বকাপ দলে নেয়ার। কিন্তু ত্রিদেশীয় সিরিজে দুর্দান্ত বোলিং করায় দলে টিকে গেছেন রাহী। দল চূড়ান্ত করা প্রসঙ্গে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘বর্তমানে ইংল্যান্ডে অবস্থানকারী ১৫ জনের দলের প্রতি আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে। স্কোয়াডের প্রতিটি খেলোয়াড়ই সর্বোচ্চ পর্যায়ে তাদের ভালো পারফর্ম করতে পারার সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছে এবং মূলত এই কারণেই আমরা তাদেরকে বেছে নিয়েছি।’ বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, রুবেল হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী। স্ট্যান্ডবাই: ইয়াসির আলি রাব্বি ও নাইম হাসান। সূত্র: ইএসপিএনক্রিকইনফো
বিশ্বকাপ খেলতে দেশ ছাড়ল কোহলিরা

বিশ্বকাপের পর্দা উঠতে আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের। আসন্ন এ বিশ্বকাপে অংশ নিতে দেশ ছাড়লেন বিরাট-ধোনিরা৷ বুধবার ভোরে মুম্বাই বিমানবন্দর থেকে লন্ডনের বিমান ধরল টিম ইন্ডিয়া৷ কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে আয়োজক ইংল্যান্ডের সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা৷ আর ভারত বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে আরও কয়েকদিন পর৷ আগামী ৫ জুন টাইটানিকের শহর সাউদাম্পটনের রোজ বোলে বিরাটদেরও প্রথম প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা৷ অধিনায়ক হিসেবে প্রথমবার বিশ্বকাপের ভারতকে নেতৃত্ব দেবেন বিরাট কোহলি৷ ক্যাপ্টেন হিসেবে প্রথম ও ক্রিকেটার হিসেবে তৃতীয় বিশ্বকাপে নামতে চলেছেন তিনি৷ এর আগে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ২০১১ ও ২০১৫ বিশ্বকাপ খেলেছেন কোহলি৷  ১৯৯২-এর পর বিশ্বকাপের নতুন ফরম্যাটকে চ্যালেঞ্জিং বলছেন ভারত অধিনায়ক৷ ১৯৯২-এর চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে বিরাটরা মাঠে নামবে ১৬ জুন৷   দীর্ঘ ২৭ বছর পর ফের বিশ্বকাপ ফিরেছে রাউন্ড-রবিন ফরম্যাটে৷ শেষবার এই ফরম্যাটে ওয়ান ডে বিশ্বকাপ হয়েছিল ১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে৷ এই ফরম্যাটের বিশ্বকাপকে অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং বলছেন ভারত অধিনায়ক৷ একে//

২২ মে: টিভিতে আজকের খেলা

টিভি পর্দায় আজ রয়েছে মজাদার ব্যাডমিন্টন খেলা। চলুন এক নজরে জেনে নিই টিভি পর্দায় রয়েছে আজ যে সব খেলা- ক্রিকেট সৌরাষ্ট্র প্রিমিয়ার লিগ সরাসরি, সন্ধ্যা ৭-৪৫ মিনিট, স্টার স্পোর্টস ওয়ান মুম্বাই টি-টোয়েন্টি সরাসরি, সন্ধ্যা ৭-৩০ মিনিট, স্টার স্পোর্টস থ্রি ওয়ানডে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজ ২০১৮ হাইলাইটস, সকাল ১০-৩০ মিনিট, সনি সিক্স ফুটবল ইউরোপা লিগ, সেমিফাইনাল ভ্যালেন্সিয়া-আর্সেনাল হাইলাইটস, সন্ধ্যা ৭-৩০ মিনিট, সনি টেন ওয়ান চেলসি-ফ্রাংকফুর্ট হাইলাইটস, রাত ৮টা, সনি টেন ওয়ান সিরি ‘এ’ লাজিও-বোলোনিয়া হাইলাইটস, বিকেল ৪টা, সনি টেন টু ব্যাডমিন্টন সুদিরমান কাপ সরাসরি, সকাল ৯টা, স্টার স্পোর্টস টু একে//

মাশরাফিদের নিয়ে স্বপ্ন সাবেকদের

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতে আত্মবিশ্বাসে টইটম্বুর বাংলাদেশ দল। ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপে তারা যাবে এই আত্মবিশ্বাস নিয়েই। এছাড়া, ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামী ২৬ ও ২৮ মে কার্ডিফে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচ দুটি। প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করতে পারলে টাইগারদের আত্মবিশ্বাস যে আরও বাড়বে এতে কোনও সন্দেহ নেই। বিশ্বকাপ নিয়ে চায়ের কাপে উঠেছে ঝড়। কোন দল কত দূর যাবে, কার দল কেমন হয়েছে তা নিয়ে ভক্তদের মধ্যে চলছে তুমুল আলোচনা। পিছিয়ে নেই সাবেক ক্রিকেটাররাও। এছাড়া, টাইগারদের নিয়ে এবার প্রত্যাশা বেশি বিসিবির। অনেক সাবেক ক্রিকেটারও মনে করছেন, বাংলাদেশের ভালো করার ঢের সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ জয়ের মতো ফেভারিট কেউ দাবি করছেন না।   আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ভালো করায় দলের বিশ্বাস আরও বেড়েছে উল্লেখ করে সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে নির্বাচক কমিটির সদস্য হাবিবুল বাশার বলেন, এই দল নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী। তাই নিজেদের সামর্থ্য দিয়ে খেলতে পারলে এবার বিশ্বকাপ আমাদের জন্য মনে রাখার মতো হতে পারে। হাবিবুল বাশার আরও বলেন, আয়ারল্যান্ডে আমাদের বড় রান তাড়া করার অভ্যাস তৈরি হয়েছে। সেই অভ্যাস বিশ্বকাপে কাজে দেবে। আমরা সব সময় ইতিবাচক চিন্তা করছি। তবে বিশ্বকাপ বাংলাদেশের জন্য যে সহজ হবে না, মানছেন সাবেক অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয়। বলেন, বিশ্বকাপে ভালো করার আশা সবারই থাকে। আমাদেরও লক্ষ্য বড়। তবে এবার বড় দলগুলো হারলে ফেরার সুযোগ পাবে। যেটা তুলনামূলক ছোট দলগুলোর জন্য কঠিন। তবে কন্ডিশনের সঙ্গে অনেকটাই মানিয়ে নিয়েছে দল। এখন বিশ্বকাপে সবকিছু ঠিকঠাক হলেই ভালো। ইংল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশ ভালো করবে বলে আশা করছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যানে আকরাম খান। বলেন, ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের টপঅর্ডার ভালো করেছে। মিডলঅর্ডারও রান পেয়েছে। ব্যাটিংটা গোছানো মনে হয়েছে। বিশ্বকাপেও এভাবে খেলতে পারলে ভালো কিছুর আশা করাই যায়।

যেসব চ্যানেলে দেখা যাবে বিশ্বকাপের ম্যাচ

বিশ্বকাপ নিয়ে চায়ের কাপে উঠেছে ঝড়। আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের। এ সময় কখন খেলা, কোন চ্যানেলে দেখাবে, কোন কোন ম্যাচ দেখাবে- এসব নিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহের কমতি নেই। এবারের বিশ্বকাপ সরাসরি সম্প্রচার করবে বাংলাদেশের ৩টি টেলিভিশন চ্যানেল। বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি), মাছরাঙ্গা টিভি এবং গাজী টিভিতে (জিটিভি) সরাসরি সম্প্রচারিত হবে বিশ্বকাপ। আর প্রতিবেশী দেশ ভারতে সরাসরি খেলা দেখা যাবে স্টার স্পোর্টস, ডিডি স্পোর্টস ও ডিডি ন্যাশনালে। এছাড়া পাকিস্তানে পিটিভি স্পোর্টস, টেন স্পোর্টস ও সনি লাইভ, অস্ট্রেলিয়াতে ফক্স স্পোর্টস, যুক্তরাজ্যে স্কাই স্পোর্টস, যুক্তরাষ্ট্রে উইলো টিভি, দক্ষিণ আফ্রিকায় সুপার স্পোর্টস এবং নিউজিল্যান্ডে স্কাই স্পোর্টস প্রচার করবে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো। মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার অধিবাসীরা ওএসএন স্পোর্টস ক্রিকেট এইচডি চ্যানেলে খেলাগুলো প্রত্যক্ষ করতে পারবেন। ক্যানাডায় এটিএন (এশিয়ান টেলিভিশন নেটওয়ার্ক), শ্রীলংকায় এসএলআরসি (চ্যানেল আই), ক্যারিবিয়ান দীপপুঞ্জে ইএসপিএন ক্যারিবিয়ান, আফগানিস্তানে মোবি টিভিতে সরাসরি খেলা দেখা যাবে। চায়নাতে ফক্স নেটওয়ার্ক গ্রুপে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরের খেলা দেখা যাবে। হংকংয়ে স্টার ক্রিকেট, নাউ টিভি অ্যাপ, মালয়শিয়াতে স্টার ক্রিকেট, অ্যাস্ট্রো গো, সিঙ্গাপুরে স্টার ক্রিকেট, স্টার হাব গো, সিংগটেল টিভি, ফিজিতে ফিজি ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (এফ বি সি টিভি)। ইউরোপ ও জাপানেও খেলা দেখা যাবে। এ জন্য চোখ রাখতে হবে আইসিসির ফেসবুক পেজে। এছাড়া অনলাইনে লাইভ স্ট্রিমিং দেখতে পারবেন বিশ্বের আনাচে কানাচে থাকা ক্রিকেট রোমান্টিকরা। বাংলাদেশে র‍্যাবিটহোল অ্যাপে, ভারতে অনলাইনে হটস্টারে, জাপানে আইসিসির ফেসবুক পেজে, যুক্তরাজ্যে স্কাই গোতে, নিউজিল্যান্ডে ফ্যান পাসে, অস্ট্রেলিয়া ও জার্মানিতে ডাজেডএনে সরাসরি খেলা দেখা যাবে। পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকায় সুপার স্পোর্টসে, অস্ট্রেলিয়াতে ফক্সটেল স্পোর্টসে, হংকংয়ে নাউ টিভিতে, কানাডা ও ইউরোপে ইউপ টিভিতে, দক্ষিণ আমেরিকাতে ইএসপিএন ও উইলো টিভি এবং মধ্যপ্রাচ্যে ওএসএন প্লেতে বিশ্বকাপের খেলা দেখানো হবে। এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচটি লড়বে ২ জুন ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পরেরটি ৫ জুন, একই ভেন্যুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। প্রাথমিক পর্বে বাংলাদেশ একটিই দিবারাত্রির ম্যাচ খেলবে, সেটি কিউদের বিপক্ষে। ৮ জুন ‘পয়া ভেন্যু’ কার্ডিফে বাংলাদেশ খেলবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। আর ১১ জুন ব্রিস্টলে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। ১৭ জুন টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন মাশরাফিরা। ২০ জুন ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলার পর ২৪ জুন সাউদাম্পটনে বাংলাদেশ পাবে আফগানিস্তানকে। উপমহাদেশের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানকে বাংলাদেশ পাচ্ছে প্রাথমিক পর্বের প্রায় শেষ দিকে। ২ জুলাই বার্মিংহামে ভারতের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। ৫ জুলাই শুক্রবার লর্ডসে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। ৯ জুলাই ম্যানচেস্টার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল, ১১ জুলাই বার্মিংহামে দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। ১৪ জুলাই লর্ডসে অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল।

ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ খেলবেন এই চার ভারতীয়!

ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপের পর্দা উঠতে আর মাত্র ৯ দিন বাকি৷ বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই ভবিষ্যদ্বাণী করতে শুরু করে দিয়েছেন, কে জিতবে এ বারের বিশ্বকাপ! তবে যাইহোক, প্রতিটি দলেই এমন কয়েকজন তারকা রয়েছেন, যিনি দলের জন্য চলতি বছরের বিশ্বকাপে শেষবারের মতো প্রাণ উজাড় করে দেবেন। আর এবার শেষ বারের মতো কারা নামতে পারেন ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে? ভারতীয় বিশ্বকাপ দলে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে রাখা হয়েছে দীনেশ কার্তিককে। মহেন্দ্র সিং ধোনিকে বাদ দিলে দীনেশই ভরসা। ঋষভ পন্থ যেহেতু দলে নেই, তাই দীনেশের অভিজ্ঞতার উপরে ভরসা করেছে দল। ২০২৩ বিশ্বকাপে ৩৩ বছরের কার্তিককে দেখা যাবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ একদিনের ক্রিকেটে কার্তিকের পারফরম্যান্সে অনেক টানাপড়েন এসেছে। তবে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনি ঝলসে উঠতে পারেন বলেই মনে করা হচ্ছে। এদিকে, ভারতীয় দলের ওপেনারের মধ্যে প্রথমেই যার নাম উঠে আসছে, তিনি শিখর ধাওয়ান। ধাওয়ানের ঝোড়ো ইনিংসের অপেক্ষায় রয়েছে দল। তবে বয়সের কথা ভেবেই মনে করা হচ্ছে, বোধ হয় এটাই তার শেষ বিশ্বকাপ হতে চলেছে। ইংল্যান্ডের ফ্ল্যাট পিচে ৩৩ বছরের এই ব্যাটসম্যানের হাত ধরে বিশ্বকাপের পথে ভারত এগিয়ে যাবে বলেই মনে করছেন অনেকে। অন্যদিকে, এটা বললে ভুল হবে না যে, সারা বিশ্বের ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনি এই মুহূর্তে সবচেয়ে ফিট। তবে ৪০-এর দিকে এগোচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাই ২০১৯ সালের বিশ্বকাপটাই ধোনির শেষ বিশ্বকাপ হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। আর ভারতের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান কেদার পুরোদস্তুর ফিট, জানিয়ে দিয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্ট। ফলে ২২ মে সতীর্থদের সঙ্গেই ইংল্যান্ড যাওয়ার বিমানে উঠছেন এই স্পিনার অলরাউন্ডার। আইপিএল চলাকালীন কাঁধে চোট পেয়েছিলেন কেদার। বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চেন্নাই সুপার কিংস কেদারকে বিশ্রাম দিয়েছিল। তবে বিশ্বকাপে ভারতের এক্স ফ্যাক্টর হয়ে উঠতে পারেন তিনি। তবে মনে করা হচ্ছে, বয়সের কারণেই ২০২৩ বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন না কেদার। একে//

অবসর নেওয়ার পর যা করতে চান ধোনি

ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপের পর্দা উঠতে আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। আসন্ন এই বিশ্বকাপের পরই হয়তো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তবে ক্রিকেট থেকে অবসরের পর কী করবেন ধোনি সেটা নিয়ে কোনও আর সাসপেন্স রাখলেন না ধোনি নিজেই। ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে সব প্রকাশ্যে চলে এসেছে। প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক নিজেই একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। বলেছেন, আমি আপনাদের সবার সঙ্গে কিছু গোপন কথা শেয়ার করতে চাই। ছোট্টবেলা থেকে আমার ইচ্ছে ছিল যে আমি একজন শিল্পী হব। ক্রিকেট তো অনেক খেলেছি। সেই জন্যই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে এবার সেটাই করব যেটা ছোট থেকে করতে চেয়েছি বা হতে চেয়েছি। সঙ্গে দেখে নিন আমার বিভিন্ন সময়ের আঁকা ছবিগুলো। ভবিষ্যতে পেইন্টিং-এক্সিবিশনও করতে চাই। সামাজিক মাধ্যমে ধোনির এই ভিডিও পোস্ট হওয়ার পরেই দ্রুত ছড়িয়ে যায়। নিজের আঁকা তিনটি ছবি দেখান ধোনি ওই ভিডিওতে। ধোনি প্রথমে যে ছবিটি দেখিয়েছেন সেটি হল একটা ল্যান্ডস্কেপের। পরেরটা একটা হেলিকপ্টারের যে ভবিষ্যতের যাব হিসেবে তিনি ব্যাখ্যা করেছেন। আর শেষেরটি তার সবচেয়ে প্রিয়। সেটা হল সেল্ট-পোট্রেট। একজন ক্রিকেটারের ছবি, যেটা নিজেকে বলেই মনে করেন মাহি।  একে//

পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়ে অভিনব প্রতিবাদ জুনায়েদের!

বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে পাঁচ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে ০-৪ হেরেছে পাকিস্তান৷ আর তাই এই হারকে ওয়েক আপ কল মনে করেই বিশ্বকাপ দলে বড়সড় পরিবর্তন আনল পাকিস্তান ম্যানেজমেন্ট৷ আইসিসি ২৩ মে পর্যন্ত দল পরিবর্তনের সুযোগ রেখেছে। সে সুযোগ কাজে লাগিয়েই বড় পরিবর্তন এনেছে তারা। বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলে জায়গা পেয়েছিলেন পাক পেসার জুনায়েদ খান। কিন্তু ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজ শেষে পারফরম্যান্সের নিরিখে বিশ্বকাপ দলে বেশ রদবদল করেন পিসিবির নির্বাচকরা। গত মাসে পাকিস্তান বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করে, যে দলে ছিলেন না মোহাম্মদ আমির। কিন্তু পরিবর্তিত দলে ফিরেছেন বাঁহাতি এই পেসার। সেই সঙ্গে পেসবিভাগে ফেরানো হল ওয়াহাব রিয়াদকে৷ শুধু তাই নয়, ভাগ্য খুলেছে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে দুর্দান্ত ব্যাটিং করা হার্ডহিটিং ব্যাটসম্যান আসিফ আলিরও। এর মাঝে আমির গত ১০ ওয়ানডেতে মাত্র ২ উইকেট পেয়েছেন। আর ওয়াহাব তো গত দুই বছরে ওয়ানডেই খেলেননি। মিকি আর্থার নিজেই ওয়াহাবের সমালোচনায় বলেছেন। আসলে বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন সবাই দেখেন। টানা দুই বিশ্বকাপ না খেলা মোহাম্মদ আমির টানা তৃতীয় বিশ্বকাপে দর্শক বনতে বসেছিলেন। কিন্তু গতকাল সোমবার হুট করে আবার বিশ্বকাপ দলে ঢুকে পড়েছেন, পূরণ হয়েছে তার স্বপ্ন। কিন্তু আমিরের স্বপ্ন পূরণ করতে গিয়ে জুনায়েদের স্বপ্ন শেষ করে দিয়েছে পাকিস্তানের নির্বাচক কমিটি। আর তাই বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ে অভিনব প্রতিবাদ করলেন জুনায়েদ খান। টুইটারে প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন ২৯ বছর বসয়ী পেসার। মুখে টেপ লাগিয়ে নিঃশব্দ প্রতিবাদ জানিয়েছেন জুনায়েদ। টুইটারে নিজের একটি ছবি প্রকাশ করেছেন। সঙ্গে তিনি লিখছেন, আমি কিছু বলতে চাই না। সত্যিটা খুব তেতো! টুইটারে জুনায়েদের এমন পোস্টে পাকিস্তানের সমর্থকেরা সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন। প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দুরন্ত পারফর্ম করেছিলেন বাঁ হাতি এই পেসার। কিন্তু সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের নিরিখে জুনায়েদ বাদ পড়ায় বেজায় চটেছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীরা। আর ওয়াহাব রিয়াজের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সবাই। অনেকেই বিশ্বকাপের দলে ওয়াহাব ও আমিরের অন্তর্ভুক্তিকে নির্বাচকদের দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি হিসেবেই দেখছেন। আমিরকে বিশ্বকাপের আগে শেষ সুযোগ দেওয়া হয়েছিল ইংল্যান্ড সিরিজে। কিন্তু বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া প্রথম ম্যাচে বল করার সুযোগ পাননি আমির। এরপর থেকে জলবসন্তে আক্রান্ত। তবু পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করেছিল, বিশ্বকাপ দলে আমিরকে সুযোগ দেওয়া হবে। সেটাই সত্য প্রমাণিত হয়েছে। আসলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের কোনও পেসারই ভালো করেননি। ১০ ওভারের কোটা পূরণ করে ৮০–এর নিচে রান দিতে দেখা যাচ্ছে না কাউকেই। নিজের শেষ ওয়ানডেতেই ৮৫ রান দিয়েছেন জুনায়েদ খান। ভাবা হচ্ছে দুই ওয়ানডেতেই ওভারপ্রতি ৭–এর বেশি রান দিয়ে নির্বাচকদের আস্থা হারিয়েছেন জুনায়েদ। পাকিস্তানের পনেরো সদস্যের চূড়ান্ত দল সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক), ফাখর জামান, ইমাম উল হক, বাবর আজম, শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ হাফিজ, আসিফ আলি, শাদাব খান, ইমাদ ওয়াসিম, হারিস সোহেল, হাসান আলি, শাহীন শাহ আফ্রিদি, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব রিয়াজ এবং মোহাম্মদ হাসনাইন। একে//

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে আসছে ৩ পরিবর্তন

বিশ্বকাপ ক্রিকেটকে সামনে রেখে অংশগ্রহণকারী সব দলই তাদের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ স্কোয়াড সাজাচ্ছেন। ইতোমধ্যে প্রায় সব দলই নিজেদের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। তবে দলে পরিবর্তন আনার সুযোগ রয়েছে আগামী ২৩ মে পর্যন্ত। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে  স্বাগতিক ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও (ইসিবি) তাদের দলে পরিবর্তন আনার পরিকল্পণা করছেন। ইংল্যান্ড দলের ডানহাতি ওপেনার অ্যালেক্স হেলস ড্রাগ টেস্টে পাস করতে পারেনি বিধায় একটি পরিবর্তন ছিলো অনুমেয়। এর সঙ্গে আরও ৩ পরিবর্তন নিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করতে যাচ্ছে ইসিবি। লেগস্পিনিং ব্যাটিং অলরাউন্ডার জো ডেনলির পরিবর্তে বাঁহাতি স্পিনিং অলরাউন্ডার লিয়াম ডসন, বাঁহাতি পেসার ডেভিড উইলির বদলে ডানহাতি গতিতারকা জোফ্রা আর্চার এবং ডানহাতি ওপেনার অ্যালেক্স হেলসের বদলে আসতে যাচ্ছেন আরেক ওপেনার জেমস ভিনস। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে এ পরিবর্তিত স্কোয়াড ঘোষণা করবে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড। তার আগে দলের কোচ ট্রেভর বেয়লিস সংবাদ মাধ্যম ইঙ্গিত দিয়েছেন এ তিন পরিবর্তনের ব্যাপারে। আগামী ৩০ মে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে ইংলিশরা, প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। ইংল্যান্ডের পূর্ব ঘোষিত বিশ্বকাপ স্কোয়াড: ইয়ন মরগ্যান (অধিনায়ক), মঈন আলি, জনি বেয়ারস্টো, জস বাটলার, টম কুরান, জো ডেনলি, অ্যালেক্স হেলস, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জো রুট, জেসন রয়, বেন স্টোকস, ডেভিড উইলি, ক্রিস ওকস, মার্ক উড। ইংল্যান্ডের সম্ভাব্য পরিবর্তিত বিশ্বকাপ স্কোয়াড: ইয়ন মরগ্যান (অধিনায়ক), মঈন আলি, জনি বেয়ারস্টো, জস বাটলার, টম কুরান, লিয়াম ডসন, জেমস ভিনস, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জো রুট, জেসন রয়, বেন স্টোকস, জোফ্রা আর্চার, ক্রিস ওকস এবং মার্ক উড। এমএইচ/

বিশ্বকাপে সবার চোখ বাংলাদেশের দিকে

সম্প্রতি সব পারফরম্যান্স মিলিয়ে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে বাংলাদেশ। ওয়ানডে ক্রিকেটে অন্যতম পরাশক্তি দল হিসেবে পুরো বিশ্ব ক্রিকেটের কাছে এক বিস্ময়ের নাম এখন টাইগার বাহিনী। তাই আসন্ন বিশ্বকা   পে অন্যতম ফেভারিট মনে করা হচ্ছে বাংলাদেশকে।  বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডের  ত্রিদেশীয় সিরিজ ছিলো বাংলাদেশের জন্য বিশ্বকাপের প্রস্তুতি। সেই প্রস্তুতিটা কিন্তু দারুণভাবেই শেষ করেছে মাশরাফিরা। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বহুজাতিক কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতে তাই নিজেদের তারা প্রমাণ করেছে তারা। শিরোপা ছাড়াও আয়ারল্যান্ড থেকে আরও কিছু প্রাপ্তি যোগ হয়েছে তাতে। বল ও ব্যাট হাতে খেলোয়াড়দের দারুণ পারফরম্যান্স আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে এই টুর্নামেন্ট। তাই  বিশ্বকাপের আগে নিজেদের এমন সাফল্য স্বস্তি দিচ্ছে বাংলাদেশকে। আগামী ৩০ মে লন্ডনের কেনিংটন ওভালে ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ১২তম আসরের। আর এই বিশ্বকাপে নিজেদের সেরাটা দিতে পারলেই বাংলাদেশের অর্জন চলে যাবে অনন্য এক উচ্চতায়।  আর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে অপ্রতিধন্ধী  এমন জয়ের কারণে পুরো বিশ্বক্রিকেটও তাকিয়ে আছে বাংলাদেশের দিকে।  ভারতের সাবেক খেলোয়াড় ও ক্রিকেট বিশ্লেষক আকাশ চোপড়া তো বলেই ফেলেছেন বাংলাদেশ বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল খেলবে। তিনি তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে ভিডিও বিশ্লেষণে  বাংলাদেশ দলের পাল্টে যাওয়ার পটভূমি টেনে বলেন, ‘২০১৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও নকআউট পর্বে খেলেছে। আর এশিয়া কাপে তো ফাইনালেই খেলেছে। এই দলকে হালকাভাবে নিলে মস্ত ভুল হবে। বাংলাদেশ ভালো ক্রিকেট খেলে, এবারও ভালো খেলবে।’ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা নিয়ে চোপড়ার উক্তি, ‘বিশ্বকাপে ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টে শুরুতে ৯ ম্যাচ পাবে বাংলাদেশ। এ বাধা টপকে নকআউট পর্বে উঠবে দলটি।’ ওয়ানডেতে বিশ্বকাপের দলগুলোর মধ্যে গত দেড় বছরে জয়ের হিসেবে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়। আগে রয়েছে কেবল ইংল্যান্ড ও ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার জয় বাংলাদেশের সমান হলেও উইকেট-প্রতি রান কম হওয়ায় তারা পিছিয়ে চতুর্থ হয়েছে। এতে অস্ট্রেলিয়া আছে অষ্টম স্থানে আর পাকিস্তান নবম। পাঁচ আর ছয়ে আছে যথাক্রমে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অবস্থান সাত। ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ২০১৯ সালের মে মাসের ১৯ তারিখ পর্যন্ত হিসেব এটা।  এ সময়ে বাংলাদেশ খেলেছে দুটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আর এশিয়া কাপ। তিনটি টুর্নামেন্টেরই ফাইনালে উঠে শিরোপা জিতেছে একটিতে। মাশরাফি বিন মুর্তজার অধীনে ২৭ ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশের জয় ১৭টিতে। হার ১০টিতে। গত দেড় বছরে বছরে দুটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আর এশিয়া কাপ ছাড়াও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ আর জিম্বাবুয়ে ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে সাকিব-তামিমরা। ৩৫ ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের জয় ২৪টিতে। ৮ হারের পাশাপাশি ফল আসেনি তাদের ৩ ম্যাচে। ২ ম্যাচ কম খেলা ভারতের জয়ও ইংল্যান্ড থেকে দুটি কম। ৩৩ ম্যাচে ২২ জয় বিরাট কোহলিদের। ভারতের হার ৭টি। টাই হয়েছে ২টি ম্যাচ। বিশ্বকাপের আগে ওয়ানডেতে সবচেয়ে বাজে অবস্থা শ্রীলঙ্কার। গত দেড় বছরে ২৬ ওয়ানডে খেলে মাত্র ৬টিতে জিতেছে লঙ্কানরা। অন্যদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পাত্তায়ই দেয়নি টাইগাররা। সব ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে চমক দেখিয়েছে তারা। তাই আসন্ন বিশ্বকাপে বল ও ব্যাট হাতে ত্রিদেশীয় সিরিজের মত জ্বলে উঠতেই পারলেই আসবে বড় সাফল্য।   এনএম/এসএইচ/    

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খেলার সময়সূচি

আগামী ৩০ মে লন্ডনের কেনিংটন ওভালে ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ১২তম আসরের। যেই আসরে অংশ্রগ্রহণ করবে টাইগারাও। সেই লক্ষ্যে চলছে প্রস্তুতিও। বাংলাদেশ কোন দলের সঙ্গে কবে খেলবে সেই তালিকা দেওয়া হলো একুশেটিভি অনলাইনের পাঠকের জন্য। বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচটি লড়বে ২ জুন ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পরেরটি ৫ জুন, একই ভেন্যুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। প্রাথমিক পর্বে বাংলাদেশ একটিই দিবারাত্রির ম্যাচ খেলবে, সেটি কিউদের বিপক্ষে। ৮ জুন ‘পয়া ভেন্যু’ কার্ডিফে বাংলাদেশ খেলবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।  ১১ জুন ব্রিস্টলে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। ১৭ জুন টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন মাশরাফিরা। ২০ জুন ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলার পর ২৪ জুন সাউদাম্পটনে বাংলাদেশ পাবে আফগানিস্তানকে। উপমহাদেশের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানকে বাংলাদেশ পাচ্ছে প্রাথমিক পর্বের প্রায় শেষ দিকে। ২ জুলাই বার্মিংহামে ভারতের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। ৫ জুলাই শুক্রবার লর্ডসে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। ৯ জুলাই ম্যানচেস্টার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল, ১১ জুলাই বার্মিংহামে দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। ১৪ জুলাই লর্ডসে  অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল।   এনএম/ এসএইচ/

দেশ ছেড়ে পালাতে চেয়েছিলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক

জাতীয় দলে সুযোগ না পাওয়ার হতাশায় অনেক দেশের ক্রিকেটারই পাড়ি জমান ভিন দেশে। সেই তালিকায় ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বর্তমান অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। তার নেতৃত্বেই এবার বিশ্বকাপ মাতাবে প্রোটিয়ারা। জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল ব্রেকফাস্ট উইথ চ্যাম্পিয়নস’-এ এক সাক্ষাৎকারে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবি ডিভিলিয়ার্স বলেন, এটা অনেকের অজানা। আমরা দুজন (ভিলিয়ার্স-ডু প্লেসি) শৈশবের বন্ধু। ওর তুলনায় কিছুটা আগে জাতীয় দলে অভিষেক হয় আমার। ওর দেরি হচ্ছিল দেখে, একটা সময় দেশ ছেড়ে ইংল্যান্ডের কোন একটা কাউন্টি দলে যোগ দেওয়ার কথা ভাবছিল ডু প্লেসিস। ভিলিয়ার্স আরও বলেন, ও আমার কাছে পরামর্শ জানতে চায়। ওকে বুঝিয়ে বলি, কিছুদিন পর অবসর নিতে যাচ্ছে কয়জন তারকা ক্রিকেটার। তখন জাতীয় দলে সুযোগ এসে যাবে। অবশেষে সেটাই হয়েছিল। ২০১১ সালের জানুয়ারিতে ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন দক্ষিণ আফ্রিকার এ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের সুবাদে দুই বছরের ব্যবধানে চলে আসেন জাতীয় দলের নেতৃত্বে। ফাফ ডু প্লেসিসের নেতৃত্বে ইতিমধ্যে ৩০টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তার মধ্যে ২৫টিতে জয় পেয়েছে। বিশ্বকাপেও প্রোটিয়াদের নেতৃত্ব দিবেন ডু প্লেসিস। আই//আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি