ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৬ ১১:০২:২৬, রবিবার

ইমরান-অবন্তিকার সংসারে ভাঙনের সুর

ইমরান-অবন্তিকার সংসারে ভাঙনের সুর

বন্ধুত্বটা ছেলেবেলার। এরপর প্রেম। সবমিলিয়ে দীর্ঘ ৮ বছর সম্পর্ক তাদের। এরপর ২০১১ সালে সাতপাকে বাঁধা পড়েন বলিউড অভিনেতা ইমরান খান ও অবন্তিকা মালিক। ২০১৪ সালে ৯ জুন ইমরান ও অবন্তিকার জীবনে আসে তাদের আদরের সন্তান ইমরা। কিন্তু এখন শোনা যাচ্ছে দু:খের সংবাদ। ভেঙে যাচ্ছে ইমরান-অবন্তিকার সুখের সংসার। বলিউড সূত্রের খবর, গত দুদিন আগেই ইমরানের বাড়ি ছেড়ে মেয়ে ইমারাকে নিয়ে বেরিয়ে গিয়েছেন অবন্তিকা। তিনি আপাতত তার মা-বাবার সঙ্গে রয়েছেন। জানা গেছে, ইমরান ও অবন্তিকার মধ্যে যে দ্বন্দ্ব, তা মিটিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে তাদের পরিবার। এর আগে অবন্তিকা নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে লিখতেন অবন্তিকা মালিক খান। কিন্তু এখন খান পদবী তুলে নিয়েছেন তিনি। যেটি নজরে আসায় গুঞ্জন রটেছে ইমরান-অবন্তিকার বিচ্ছেদের খবর। এমনকি এবিষয়ে অভিনেতা ইমরান খানকে প্রশ্ন করলে এড়িয়ে যাচ্ছেন তিনি। ইমরান-অবন্তিকার বিচ্ছেদের বিষয়ে অবন্তিকার মা বন্দনা বলেন, ‘যা শোনা যাচ্ছে, তা একটুও সঠিক নয়। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া, অশান্তি হতেই পারে। সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে। ইমরান বা অবন্তিকা কেউই বিবাহ-বিচ্ছেদের কথা ভাবছেন না।’ এদিকে জানা যাচ্ছে, দীর্ঘদিন ধরে ইমরানের ক্যারিয়ারে কোনও সাফল্য আসছে না। যার কারণেই অবন্তিকার সঙ্গে তার সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। উল্লেখ্য, ইমরান খান অভিনেতা আমির খানের ভাগ্নে। সূত্র : জি নিউজ এসএ/  
‘অভাগিনী মা’ চম্পা

চিত্রনায়িকা চম্পা। সিনেমায় এখন তাকে খুব একটা দেখা যায় না। তবে মাঝে মধ্যে ছোট পর্দায় নাটকে অভিনয় করেন তিনি। সেই ধারাবাহিকতায় এবার বিশেষ একটি টেলিফিল্মে দেখা যাবে তাকে। নাম ‘অভাগিনী মা’। টেলিফিল্মটি নির্মাণ করেছেন গোলাম হাবিব লিটু। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা চম্পা। তাকে একজন দুঃখী মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে। টেলিফিল্মটির গল্পে দেখা যাবে- ‘রিনি ও নীল দুই বন্ধু। তাদের বসবাস শহরে। মর্জিনা (চম্পা) নামের এক মহিলাকে খুঁজছেন তারা। এজন্য শহর থেকে প্রথমবার তাদের গ্রামে যাওয়া। কিন্তু কেন এই মহিলাকে খুঁজছে তারা? রিনি জানলেও নীল এর কিছুই জানেন না। নীলের কোন প্রশ্নের জবাবও দেয় না রিনি। সে শুধু নীলকে বলেন, সে যা যা বলতে এবং করতে বলে যেন সেটাই করে। অনেক খুঁজে অবশেষে মর্জিনার সন্ধান পায় তারা। এর পর কী হবে তা জানা যাবে টেলিফিল্মটি দেখলেই। ‘অভাগিনী মা’ টেলিফিল্মটিতে অন্যান্য চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন শবনম ফারিয়া, জীবন রায়, বাবু, সোহেলী, বৃষ্টি প্রমুখ। আগামী শুক্রবার দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে চ্যানেল আইতে দেখা যাবে ‘অভাগিনী মা’। এসএ/  

অভিনেত্রী তাজিনের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ছোটপর্দার নন্দিত অভিনেত্রী তাজিন আহমেদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালের ২২ মে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। ১৯৭৫ সালের ৩০ জুলাই নোয়াখালী জেলায় জন্ম তার। তবে তাজিনের শৈশব-কৈশোর কেটেছে পাবনায়। ১৯৯৬ সালে বিটিভিতে প্রচারিত ‘শেষ দেখা শেষ নয়’ নাটকের মধ্য দিয়ে অভিনয়যাত্রা শুরু করেন। এর আগে ১৯৯১ সালে বিটিভির ‘চেতনা’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উপস্থাপনা শুরু করেন তাজিন। কিন্তু টিভি নাটকই তাকে সর্বাধিক জনপ্রিয়তা ও প্রশংসা এনে দেয়। তার অভিনীত বিটিভির ‘আঁধারে ধবল দৃপ্তি’ বেশ প্রশংসিত হয়। তাজিন ১৯৯৭ সালে ‘থিয়েটার আরামবাগ’ দিয়ে মঞ্চনাটক শুরু করেন। এরপর ‘নাট্যজন’ থিয়েটারের হয়ে বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেন। পরবর্তী সময়ে আরণ্যক নাট্যদলের ‘ময়ূর সিংহাসন’ নাটকে অভিনয় করেছিলেন দীর্ঘ সময় ধরে। তার সর্বশেষ অভিনীত মঞ্চনাটক ছিলো এটি। এছাড়া হুমায়ূন আহমেদের নাটক ‘নীলচুড়ি’তে অভিনয় করেও বেশ আলোচিত হন তিনি। তার সর্বশেষ অভিনীত ধারাবাহিক নাটক ‘বিদেশি পাড়া’। অভিনয়ের বাইরে লেখালেখির কাজেও যুক্ত ছিলেন তাজিন। লিখেছেন একাধিক নাটক। উপস্থাপনায়ও ছিলেন বেশ দাপুটে। তাজিন আহমেদ পড়াশোনা করেছেন ঢাকা ইডেন মহিলা কলেজে। ম্যানেজমেন্টে স্নাতকোত্তর করেছেন এই অভিনেত্রী। নাট্যাঙ্গনে কাজ করার পাশাপাশি বেশ কয়েক বছর সাংবাদিকতায় যুক্ত ছিলেন। দৈনিক ভোরের কাগজ ও দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় সাংবাদিক হিসেবে কাজ করেছিলেন। ব্যক্তিজীবনে তিনি প্রথমে ঘর বেঁধেছিলেন নির্মাতা এজাজ মুন্নার সঙ্গে। কয়েক বছরের ব্যবধানে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর বিয়ে করেছিলেন ড্রামার রুমি রহমানকে। এদিকে, তাজিন আহমেদকে স্মরণ করে স্মৃতিকাতর হয়েছেন তার সমসাময়িক অভিনেত্রী-অভিনেতারা। এসএ/  

ঈদের আনন্দমেলায় মাহিয়া মাহি

মাহিয়া মাহি। ঢাকাই সিনেমার অগ্নিখ্যাত নায়িকা। সিনেমায় ইদানিং তাকে খুব একটা দেখা যাচ্ছে না। তবে দুটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। একটি ‘দাগ’, অপরটি ‘অবতার’। নতুন খবর হচ্ছে- এবার প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ টেলিভিশনের ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দমেলা’য় দেখা যাবে তাকে। এই আয়োজনে ‘জিতবে এবার জিতবে ক্রিকেট’, ‘ম্যাজিক মামণি’ ও ‘টুপটাপ’ শিরোনামের তিনটি গান নিয়ে তৈরি হচ্ছে আট মিনিটের একটি কোলাজ নৃত্য। এতে অংশ নিয়েছেন তিনি। মাহির সঙ্গে নৃত্য পরিবেশনা করেছেন ঈগলস ড্যান্স দলের আরও ২০ নৃত্যশিল্পী। গানগুলোর কোরিওগ্রাফি করেছেন তানজিল আলম। এ বিষয়ে মাহি বলেন, ‘আমার প্রিয় অনুষ্ঠানগুলোর তালিকায় রয়েছে আনন্দমেলা। প্রতিবছর পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেখা হয়। কিন্তু কখনও কাজের সুযোগ হয়নি। এবারই প্রথম এতে পারফর্ম করলাম। বেশ ভালো লাগছে। তিনটি গানে পারফর্ম করছি, কাজটিও দারুণ হয়েছে।’ ‘আনন্দমেলা’ অনুষ্ঠানের প্রযোজক মাহফুজার রহমান। ঈদুল ফিতরের দিন রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর বিটিভিতে প্রচার হবে। এদিকে বর্তমানে মাহিয়া মাহি ব্যস্ত রায়হান রাফির ‘দাগ’ সিনেমার কাজ নিয়ে। এতে তার সহশিল্পী ইয়াশ রোহান। আর মুক্তি অপেক্ষায় রয়েছে হাসান সিকদারের ‘অবতার’। এতে তার সহশিল্পী আমিন খান। এসএ/

‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’র সন্ধানে কোয়েল-পরমব্রত

আবারও জুটি হলেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও কোয়েল মল্লিক। তাদের নতুন সিনেমা ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’। সেই ‘হেমলক সোসাইটি’ সিনেমাতে মন কেড়েছিল এই জুটি। তারপর আর তাদের সেভাবে একসঙ্গে দেখা যায় নি। এবার ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’ এর সন্ধানে তাদের মিশন শুরু। পরিচালক সায়ন্তন ঘোষালের ‘যকের ধন’ সিনেমার সিক্যুয়েল এটি। এরই মধ্যে প্রকাশ্যে এসেছে সিনেমার পোস্টার। সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচালকের পাশাপাশি পোস্টারটি শেয়ার করেছেন কোয়েল ও পরমব্রত দুজনেই। এই পোস্টারটির অভিনবত্ব এটাই যে এটি একটি থ্রিডি পোস্টার। এর আগে পরিচালক সায়ন্তন ঘোষালে ‘যকের ধন’ সিনেমাটি বেশ প্রশংসিত হয়েছিল। দর্শকদের মনও কেড়েছিল। তাই তার সিক্যুয়েল হিসাবে ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’ সিনেমাটি নিয়েও একটু আলাদা আগ্রহ সবার। প্রসঙ্গত, এর আগে যকের ধন সিনেমাতে দেখা গিয়েছিল পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, প্রিয়াঙ্কা সরকার, সব্যসাচী চক্রবর্তী, কৌশিক সেন, রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো অভিনেতা অভিনেত্রীদের। তবে ‘যকের ধন’ সিক্যুয়েল, ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’ সিনেমাতে অভিনেতা অভিনেত্রীদের তালিকাটা অনেকটাই পরিবর্তন হয়েছে। এই সিনেমাতে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, কোয়েল মল্লিক, ছাড়াও রয়েছেন গৌরব চক্রবর্তী, রজতাভ দত্ত, কাঞ্চন মল্লিক, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় সহ আরও অনেকেই। সায়ন্তন ঘোষালের এই সিনেমার প্রযোজনা করছে অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিকের স্বামী নিসপাল সিং রানের প্রযোজনা সংস্থা সুরিন্দর ফিল্মস। সূত্র : জি নিউজ এসএ/

মোদীর বায়োপিকের নতুন পোস্টার ও ট্রেলার প্রকাশ

কথা ছিল নির্বাচনের আগেই নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক মুক্তি দেওয়া হবে। কিন্তু এমন সিদ্ধান্তে বিতর্কের মুখে পড়ে নির্মাতারা। বিরোধী পক্ষের অভিযোগ- ভোটারদের প্রভাবিত করার জন্যই ভোটের আগে এই সিনেমা মুক্তি দেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। সেই বিতর্কের মুখে দাঁড়িয়ে মুক্তি পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয় তারা। আগামী ২৩ মে লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরের দিন ২৪ মে মুক্তি পেতে যাচ্ছে মোদীর বায়োপিক। এরই মধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে সিনেমার নতুন পোস্টার। সেই সঙ্গে নতুন করে সিনেমার ট্রেলারও প্রকাশ্যে আনলেন নির্মাতারা। সিনেমাটিতে নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেতা বিবেক ওবেরয়কে। নতুন পোস্টার নিজের সোশ্যাল অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেন বিবেক। ক্যাপশানে লিখেছেন, ‘ভারত এ সব কাজের শুরু শাঁখ বাজিয়েই করা হয়।’ ২০১০ সালে এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া নরেন্দ্র মোদীর ইন্টারভিউকে দিয়ে শুরু হয়েছে এর ট্রেলার। যেখানে সেসময় দেশের সরকারকে আক্রমণ করতে দেখা যায় নরেন্দ্র মোদী রূপী বিবেক ওবেরয়কে। একজন সাধারণ চা বিক্রেতা থেকে রাজনীতির আঙিনায় উঠে আসা নরেন্দ্র মোদীর জীবনের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরা হয়েছেন এর ট্রেলারে। তুলে ধরা হয়েছে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মোদীর বিজনেস সামিটের আয়োজন করা থেকে তার কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে উঠে আসার নানান মুহূর্ত। ট্রেলারে নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও তুলে ধরা হয়ে অমিত শাহ, মনমোহন সিং, সোনিয়া গান্ধী সহ আরও একাধিক চরিত্রকে। পাশাপাশি ২০০২ সালে হওয়া গুজরাট দাঙ্গার প্রসঙ্গও তুলে ধরা হয়েছে ট্রেলারে। নরেন্দ্র মোদী সিনেমাটির পরিচালনা করেছেন ওমাঙ্গ কুমার। এই সিনেমাতে বিবেক ওবেরয় ছাড়াও অমিত শাহ-র চরিত্রে দেখা যাবে মনোজ যোশী, যশোদাবেন-এর চরিত্রে বরখা বিস্ত। জারিনা ওয়াহাবকে দেখা যাবে মোদীর মায়ের ভূমিকায়। ব্যবসায়ীর ভূমিকায় দেখা যাবে বোমান ইরানিকে। সূত্র : আনন্দবাজার এসএ/

বান্ধব আসছে ঈদের পর

অনুপম কথাচিত্র প্রযোজিত এবং সুজন বড়ুয়ার কাহিনী ও পরিচালনায় ঈদের দ্বিতীয় বা তৃতীয় সপ্তাহে মুক্তি পাবে চলচ্চিত্র ‘বান্ধব’।এতে অভিনয় করেছেন, মৌ খান,গাজী রাকায়েত, রেবেকা রৌফ, জয় রাজ, প্রয়াত সিরাজ হায়দার, সুমিত, আসমা, হাবিব খান,আন্না,শায়লা,উর্মি,আরফান প্রমুখ। প্রযোজক আবুল বাশার এবং অনুপ কুমার বড়ুয়া জানান,ডাস্টবিনে ময়লা আবর্জনায় মধ্যে কুরিয়ে পাওয়া একটি জন্ম পরিচয়হীন শিশুর জীবনের গল্প নিয়ে সিনেমাটি তৈরি করা হয়েছে। পরিচালক সুজন বড়ুয়া বলেন, একটি সুন্দর চলচ্চিত্রের জন্য একটি মৌলিক এবং বাস্তব গল্প প্রয়োজন। কোন শিশু জন্মের পর জারজ হয় না, এর জন্য তার বাবা -মা দায়ী। জন্মের পর যারা সন্তানের পরিচয় দিতে লজ্জা পায় বা ভয় পায়, দায়িত্ব নিতে চায় না সেই গল্পই ক্যামেরা বন্দি করে দর্শককে দেখানোর চেষ্টা করেছি।  জন্মের পর শিশুকে কেন  ডাস্টবিনে থাকতে হবে? কি অপরাধ তার? এটাই ছবির মূল গল্প। মৌ খান বলেন, চলচ্চিত্রটিতে কাজ করতে গিয়ে আমি নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করি। এই প্রথম নিজেকে নায়িকা না ভেবে একজন অভিনেত্রী ভাবতে পেরেছি। এটা অনেকটা চ্যালেন্জিংও ছিলো আমার জন্য। চলচ্চিত্রটিতে মোট গান ৫টি। আর গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন,আশিকুর রহমান, চৈতী মুৎসদ্দি, বেলী আফরোজ, কোনাল।   এনএম/এসএইচ/

নয়া লুকে অক্ষয়, পোস্টারেই চমক

বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার। তিনি যে জাত অভিনেতা তা নতুন করে বলার কিছু নেই। ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে নিজেকে প্রকাশ করার কৌশল অক্ষয় বেশ ভালোই জানেন। এবার তার নতুন লুক দেখে চমক খেয়েছে দর্শক। প্রকাশ পেয়েছে তার নতুন সিনেমা ‘লক্ষ্মী বম্ব’র প্রথম পোস্টার। এক চোখে কাজল পরা। অন্য চোখে কাজলের টান দিচ্ছেন অক্ষয়। চোখের দৃষ্টিতে ভিন্ন এক অভিব্যক্তি। ঠিক এ ভাবেই ‘লক্ষ্মী বম্ব’র প্রথম পোস্টারটি সামনে এসেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টারের লুক নিজেই শেয়ার করেছেন অক্ষয়। তামিল সিনেমা ‘কাঞ্চনা’র রিমেক ‘লক্ষ্মী বম্ব’। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন অক্ষয় এবং কিয়ারা আডবাণী। ধারণা করা হচ্ছে- অক্ষয় এতে ট্রান্সজেন্ডারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সিনেমাতে থাকবে কিছু ভূতুড়ে অনুষঙ্গও। জানা গেছে, অমিতাভ বচ্চনকেও এই সিনেমাতে এক ট্রান্সজেন্ডারের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। একটি সাক্ষাৎকারে এই সিনেমার পরিচালক রাঘব লরেন্স জানিয়েছিলেন, একটি বিশেষ চরিত্রে অমিতাভ বচ্চনকে কাস্ট করতে চান তিনি। কিন্তু অক্ষয় কুমার এবং তার টিমের সঙ্গে কথা বলার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সব কিছু ঠিক থাকলে সিনেমাটি মুক্তি পাবে ২০২০ সালের ৫ জুন। সূত্র : আনন্দবাজার এসএ/  

ম্যাশ আমার ক্রাশ: পূজা চেরি (ভিডিও)

ত্রিদেশীয় সিরিজ ও অন্য টুর্নামেন্ট মিলে ২০০৯ সাল থেকে ছয়বার ফাইনালে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অবশেষে সপ্তমবারের প্রচেষ্টায় আয়ারল্যান্ডে সদ্য সমাপ্ত ত্রিদেশীয় সিরিজে মাশরাফির নেতৃত্বে ঐতিহাসিক ট্রফি জিতেছে বাংলাদেশ। ক্যারিয়ারের গোধূলি লগ্নে এমন একটি ট্রফি উঁচিয়ে ধরার সৌভাগ্যে নিজেও তৃপ্ত নড়াইল এক্সপ্রেস। এদিকে, সিনেমার পর্দায় বহুবার উঠে এসেছে খেলোয়াড়দের জীবনের গল্প। উঠে এসেছে বিভিন্ন ধরনের কাহিনী। তাই কোনো একদিন জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে ওঠা মাশরাফিকে নিয়ে ছবি বানানো হবে কি না সেটা সময়ই বলে দিবে। অবশ্য বাস্তব জগতের নায়ক মাশরাফি সিনেমার নায়কদের থেকে মোটেও কম নন। এমনটাই মনে করেন হালের অভিনেত্রী পূজা চেরি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ক্রিকেটের প্রসঙ্গ উঠলে এমনটা জানান পূজা। এতে নড়াইল এক্সপ্রেসকে নিয়ে নানা কথা বলেছেন পূজা। তিনি বলেন, ক্যাপ্টেন সিনেমার হিরো হলে ভালো লাগবে। তবে মাশরাফি অভিনয় করবেন না বলে মনে হয় এই অভিনেত্রীর। মাশরাফির বিপরীতে সিনেমা করতে চান কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে পূজা বলেন, এখানে চাওয়া বা না-চাওয়ার প্রশ্ন আসে না। কারণ আমার মনে হয়, তিনি সিনেমায় আসবেন না। তবে ভবিষ্যতে যদি কখনও এমন সুযোগ হয় তাহলে ভেবে দেখব। এ উঠতি তারকা বলেন, ম্যাশ ভালো একজন ক্রিকেটার। সবদিক দিয়েই পারফেক্ট। আসলে বলতে গেলে উনি আমার ক্রাশ। হিরো হলে ভালোই লাগবে। সদ্যই এসএসসি পাস করেছেন পূজা। অল্প বয়সে তারকাখ্যাতি পাওয়া এ অভিনেত্রীর জন্ম ও বেড়ে ওঠা ঢাকাতেই। ২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় জগতে পা রাখেন তিনি। পরের দুই বছরে ‘তবুও ভালোবাসি’ ও ‘অগ্নি’ চলচ্চিত্রে দেখা যায় তাকে। সেগুলোর কোনোটিই মূল চরিত্র ছিল না। পূজাকে প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যায় ২০১৮ সালে ‘নূরজাহান’ ছবিতে। এর পর ‘পোড়ামন-২’, ‘দহন’, ‘প্রেম আমার ২’-এর মতো ছবিতে অভিনয় করে দর্শক হৃদয়ে আসন করে নেন তিনি।

আইসিইউ থেকে কেবিনে এটিএম শামসুজ্জামান

তাকে নিয়ে দফায় দফায় মৃত্যুর গুজব ছড়ানো হয়েছে। কিন্তু রাখে আল্লাহ মারে কে? অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান এখন অনেকটা সুস্থ হয়ে উঠছেন। এরই মধ্যে দীর্ঘ ২৩ দিন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) থাকার পর সোমবার তাকে কেবিনে নেওয়া হয়েছে। নন্দিত এই অভিনেতা গুরুতর অসুস্থ হয়ে গত এপ্রিলে রাজধানীর আজগর আলী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় দীর্ঘদিন। এর মধ্যে বেশ কয়েক দফায় তাকে নিয়ে ছড়ানো হয় মৃত্যুর গুজব। তবে সব গুজব উড়িয়ে দিয়ে সবার দোয়ায় অবশেষে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন। এ বিষয়ে এটিএম শামসুজ্জামানের মেজ মেয়ে কোয়েল আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বাবার শরীর এখন অনেকটাই ভালো। স্বাভাবিকভাবে সবার সঙ্গে কথা বলছেন। চিকিৎসক তাকে কেবিনে স্থানন্তর করেছেন। সবার কাছে দোয়া চাচ্ছি তিনি যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে বাসা ফিরেতে পারেন।’ প্রসঙ্গত, সম্প্রতি তাকে দেখা গেছে হাস্যোজ্জ্বল মুখে, নায়িকা পপির সঙ্গে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আনন্দমাখা সেই ছবিও প্রকাশ পেয়েছে। উল্লেখ্য, এটিএম শামসুজ্জামান বাংলা চলচ্চিত্রের এক কিংবদন্তীতুল্য অভিনেতা। তার অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা তাকে এনে দিয়েছে তারকা খ্যাতি। গুণী এই অভিনেতা ১৯৪১ সালে নোয়াখালি জেলায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম নুরুজ্জামান ও মা নুরুন্নেসা বেগম। আট ভাইবোনের মধ্যে শামসুজ্জামান সবার বড়। প্রায় ছয় দশক ধরে তিনি রূপালী পর্দার দর্শককে মাতিয়ে রেখেছেন। কখনও হাসিছেন কখনও বা কাঁদিয়েছেন অভিনয় শৈলী দিয়ে। পাঁচ পাঁচবার অর্জন করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদকও। বাংলা চলচ্চিত্রের প্রখ্যাত এই অভিনেতা শুধু  অভিনয়ে সীমাবদ্ধ থাকেননি। পাশাপাশি তিনি পরিচালক, কাহিনীকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার হিসেবে সমধিক পরিচিতি পেয়েছেন। এসএ/  

মোদীর ধ্যানের ছবি নিয়ে মশকরায় অক্ষয় পত্নী!

ভারতের সপ্তম দফার নির্বাচনী প্রচার শেষ করেই ‘কেদারনাথ’ সফরে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কেদারনাথের গুহায় দীর্ঘক্ষণের জন্য তার ধ্যানে বসার ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও সেই ছবি পোস্ট করেছেন। যা নিয়ে শেষ দফার ভোটের আগে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ এনেছেন বিরোধীরা। তবে প্রধানমন্ত্রীর এই ধ্যানের ছবি ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়াতেও তৈরি হয়েছে অসংখ্যা মিম। এদিকে, সোমবার প্রধানমন্ত্রীর এই ধ্যানে বসার ঘটনাকে কিছুটা মশকরা করেই একটি ছবি পোস্ট করেছেন অক্ষয় কুমার পত্নী টুইঙ্কেল খান্না। যে ছবিতে গেরুয়া রঙের একটি পশুর মূর্তির পাশে টুইঙ্কেলকে মনসংযোগে বসতে দেখা গেছে। যে ছবির ক্যাপশানে টুইঙ্কেল লিখেছেন, ‘গত বেশ কয়েকদিন ধরে এধরনের আধ্যাত্মিক ও মনসংযোগের ছবি দেখে আমি মেডিটেশন ফটোগ্রাফির পোজ ও অ্যাঙ্গেলের উপর ওয়ার্কশপ করব ভাবছি।’ টুইঙ্কেল খান্নার এই ছবি দেখে বেশ বোঝা যাচ্ছে যে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ধ্যানমগ্ন ছবি দেখার পরই এই মশকরা করেছেন। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে টুইঙ্কেল খান্নার স্বামী অক্ষয় কুমার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর একটি অরাজনৈতিক সাক্ষাৎকার নেন। যেখানে অক্ষয় নরেন্দ্র মোদীকেকে বলেন, ‘`আমি খেয়াল করেছি, আপনি নিয়মিত টুইটার থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়া ফলো করেন।’ অক্ষয়ের এই কথা প্রসঙ্গেই মোদীজি হাসতে হাসতে বলেন, ‘আমি আপনার ও আপনার স্ত্রী টুইঙ্কেলের টুইটারও ফলো করি। কখনও কখনও আমার মনে হয় টুইঙ্কেলজি আমার উপর রাগ টুইটারে উগড়ে দেন। এতে আমার মনে হয় আপনার ও আপনার স্ত্রী পারিবারিক জীবন অনেক শান্তির হয়। ওনার পুরো রাগ যখন উনি আমার উপরই টুইটারে উগড়ে দেন তাতে আপনি শান্তিতে থাকেন। এভাবই আমি আপনারও কাজে লাগি।(হাসতে হাসতে)’ তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/

তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে স্কারলেট

তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন অ্যাভেঞ্জার্স খ্যাত অভিনেত্রী স্কারলেট জোহানসন। শুধু তাই নয়, এরই মধ্যে তিনি ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’ তারকা কলিন জোস্টের সঙ্গে আংটি বদলও করে ফেলেছেন। বরাবরই এ অভিনেত্রী আলোচনায় থাকেন বিভিন্ন ইস্যুতে। এবার নতুন করে খবরের জন্ম দিলেন তিনি। সবাইকে এক প্রকার অবাক করে দিয়েছেন অভিনেত্রী। যদিও কবে তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন তা এখনও জানানো হয়নি। প্রসঙ্গত, এর আগে দু’বার বিয়ে করেছিলেন জোহানসন। ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত তিনি কানাডিয়ান অভিনেতা রায়ান রেনল্ডসের সঙ্গে সংসার করেছিলেন। এরপর বিয়ে করেন ফরাসি ব্যবসায়ী রোমেইন ডুরিচকে। কিন্তু ২০১৪ সালে ডুরিচকে বিয়ে করার পর তা টেকে মাত্র তিন বছর। এ সংসারে তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ‘অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম’-এর প্রিমিয়ারে নতুন প্রেমিক কলিন জোস্টকে সঙ্গে নিয়ে আসেন স্কারলেট। তখন থেকেই গুঞ্জন শুরু হয়। যদিও ২০১৭ সালের মে মাসে ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’র ৪২তম মৌসুমে একটি পার্টিতে তাদের প্রথম পরিচয় হয়। সূত্র : এপি এসএ/

বাবার পরিচালনায় আলিয়ার প্রথম কাজ, আবেগে যা বললেন

দীর্ঘ ২০ বছর পর ফের পরিচালনায় ফিরেছেন মহেশ ভট্টে। সিনেমায় প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন তার মেয়ে বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। বাবার সিনেমায় প্রথম কাজ নিয়ে উত্তেজিত আলিয়া ভাট। শনিবার থেকে শুরু হয়েছে ‘সড়ক-২’-এর শুটিং। এ ছবির শুটিং নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি শেয়ার করেছেন আলিয়া। আলিয়া লিখেছেন, “ফিল্মের প্রথম দিনের শুটিং হয়ে গেল। বাবাই আমার পরিচালক। প্রথম দিন আমার শুটিং ছিল না। আর কয়েকদিনের মধ্যেই আমি শুটিং শুরু করব। ...এ যেন স্মৃতির পাহাড়ে ওঠার চেষ্টা। আমি নিশ্চিত চূড়ায় উঠব। যদি পড়েও যাই, আবার উঠে দাঁড়াব। একদম নতুন একটা জার্নি...।” আলিয়া ছাড়াও সঞ্জয় দত্ত, পূজা ভট্ট, আদিত্য রয় কাপুর, গুলশন গ্রোভারের মতো শিল্পীর অভিনয়ে সমৃদ্ধ হতে চলেছে এই ছবি। ‘সড়ক-২’-এর চিত্রনাট্য সবার আগে নাকি পেয়েছিলেন গুলশন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এ খবর জানিয়েছেন পূজা ভট্ট। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের ২৫মার্চ মুক্তি পাবে এই ছবি। সূত্র: আনন্দবাজার

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি