ঢাকা, ২০১৯-০৪-২৬ ৭:৪৭:২৪, শুক্রবার

বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ: সন্ধ্যায় মুখোমুখি মঙ্গোলিয়া-লাওস

বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ: সন্ধ্যায় মুখোমুখি মঙ্গোলিয়া-লাওস

দেশে প্রথমবারের মতো শুরু হওয়া মেয়েদের আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মুখোমুখি হবে মঙ্গোলিয়া-লাওস। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাওয়া ম্যাচটি সরাসরি দেখা যাবে বিটিভি ও আরটিভিতে। প্রথম ম্যাচে কিরগিজিস্তানের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী মঙ্গোলিয়া। অন্যদিকে এ ম্যাচ দিয়ে আসর শুরু করবে লাওসের মেয়েরা। তাই জয় ভিন্ন অন্য কিছু ভাবছে না সাবোইয়া খামের শিষ্যরা। লাওসের মেয়েদের চেয়ে র‌্যাংকিংয়ে ৩৮ ধাপ এগিয়ে মঙ্গোলিয়ার মেয়েরা। ঘরোয়া ফুটবলে লিগ থাকায় তাদের ফুটবলে উন্নতিটা চোখে পড়ার মত। তাই কোচ নাওকো কায়ামাতোর লক্ষ্য টুর্নামেন্টে ফাইনালে খেলা। সে জন্য ফিনিশিংয়ে আর আক্রমণ ভাগে ভালো করতে চায় তারা। মঙ্গোলিয়ার কোচ নাওকো কায়ামাতো বলেন, এ ম্যাচে জিতলেই আমরা টেবিলের শীর্ষে থেকে সেমিফাইনালে উঠতে পারবো। লাওস ভালো দল। তবে আমার মেয়েরা নিজেদের সেরাটা দিয়েই খেলবে। প্রসঙ্গত, বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে এই টুর্নামেন্টটি বাফুফের ব্যবস্থাপনায় মেয়েদের প্রথম কোনও বৈশিক আসর। এর আগে ৫ বার আয়োজিত হয়েছে ছেলেদের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। গেল ক’বছরে নারী ফুটবলে বাংলাদেশের ধারাবাহিক সাফল্য বিচারে সেই আদলেই একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের চিন্তা করেছে বাফুফে। যার নামকরণ হয়েছে বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে। গেল ক’বছরে বাংলাদেশের সাফল্যগুলো এসেছে বয়সভিত্তিক আসরে। জাতীয় দল তেমন সুবিধা করতে পারেনি কোথাও। বলতে গেলে বাংলাদেশের মেয়েদের শক্তিশালী মূল জাতীয় দল গঠন এখনো প্রক্রিয়াধীন। এ কারণে এই টুর্নামেন্ট অনূর্ধ্ব-১৯ দল নিয়ে আয়োজনের পরিকল্পনা হাতে নেয় আয়োজকরা। বাংলাদেশ ছাড়াও পাঁচ দল অংশ নিচ্ছে আসরে। বয়সভিত্তিক পর্যায়ে বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশের মেয়েদের সাফল্য বিবেচনায় আসরের অন্য দলগুলো শক্তি সামর্থ্যে খুব একটা এগিয়ে নেই স্বাগতিকদের চেয়ে। বরং কিছু দলকে নিয়মিতই বড় ব্যবধানে হারানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে বাংলাদেশের। অবশ্য দল লাওস ও মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে আগে কখনও খেলেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। গত সোমবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ ফুটবল। আগামী ৩ মে টুর্নামেন্টের শিরোপার লড়াই হওয়ার কথা ছিল। এখন একদিন পিছিয়ে ফাইনালের সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে ৪ মে।  
শিরোপার খুব কাছে বার্সা

লা লিগায় আলভেসের মাঠে জালের দেখা পেয়েছেন কার্লস আলেনা ও লুইস সুয়ারেজ। এতে শিরোপার দিকে আরও এক পা দিয়ে রাখলো বার্সেলোনা। শিরোপা থেকে আর মাত্র ৩ পয়েন্ট দূরে আছে তারা। মঙ্গলবার প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে এরনেস্তো ভালভেরদের শিষ্যরা। লিগের প্রথম পর্বে গেলো আগস্টে নিজেদের মাঠে আলভেসকে ৩-০ গোলে হারায় কাতালান ক্লাবটি। প্রতিপক্ষের মাঠে একচেটিয়া প্রাধান্য বিস্তার করলেও প্রথমার্ধে জালের দেখা পায়নি বার্সেলোনা। অবশ্য ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার বড় সুযোগ ছিল অতিথিদের। কিন্তু ফিলিপে কুতিনহোর নেওয়া শট এক ডিফেন্ডারের পায়ে বাধা পেয়ে ফিরলে সুযোগ হারায় তারা। বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৫৪তম মিনিটে অপেক্ষার অবসান হয় বার্সার। ডান দিক থেকে সার্জিও রবের্তোর পাস বুদ্ধি করে ছেড়ে দিয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। খুব কাছে থেকে ডান পায়ের শটে সেটা জালে জড়িয়ে দেন ২১ বছর বয়সী স্প্যানিশ মিডফিল্ডার কার্লস আলেনা। এর ৬ মিনিট পর সফল স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সুয়ারেজ। ডি-বক্সে বল আলাভেস ডিফেন্ডার তমাস পিনার হাতে লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। এতে লিগে ২১ গোল নিয়ে গোলদাতার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এলেন তিনি। সেখানে আগেই ছিলো করিম বেনজেমা। ম্যাচের বাকি সময় একাধিক সুযোগ হাতছাড়া করে বার্সা। ফলে ব্যবধান আর বাড়েনি। শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। এ জয়ে ৩৪ ম্যাচে ২৪ জয় ও আট ড্রয়ে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। শেষ চার ম্যাচে আর মাত্র ৩ পয়েন্ট পেলেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাবে তারা। ১২ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে এক ম্যাচ কম খেলা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। আর ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

মুখরক্ষা করতে মরিয়া ম্যানইউ

এভারটনের কাছে ০-৪ হারের প্রতিক্রিয়া! অনুতপ্ত পল পোগবা বললেন, ম্যাচটা আমরা যেভাবে খেলেছি সেটা ক্লাব আর সমর্থকদের কার্যত অসম্মান করা। এখন যা অবস্থা, তাতে সবার আগে মাঠে নেমে আমাদের মানসিকতাটা বদলে ফেলতে হবে। বুধবার ম্যানচেস্টার ডার্বির আগে ফরাসি তারকার এ হেন মন্তব্যে হইচই ব্রিটিশ ফুটবল মহলে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের পরিস্থিতি অবশ্য তার আগেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে উলে গুনার সুলশারের বিবৃতিতে। এভারটনের কাছে লজ্জার হারের পরে তিনি পরিষ্কার বলে দেন, প্রিয় ক্লাবে কোচ হিসেবে অবশ্যই একদিন আমি সফল হব। কিন্তু তখন এখনকার দলের অনেকেই হয়তো থাকবে না। ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যমে লেখা হচ্ছে, ম্যানইউ কোচ কার্যত হুমকি দিয়েছেন পোগবাদের। এবং এখন যা ছবি তাতে ম্যানইউ মুখরক্ষা করতে পারে একমাত্র বুধবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিকে হারাতে পারলে। ইপিএল টেবলে ম্যানইউ এখন ছ’নম্বরে। পয়েন্ট ৩৪ ম্যাচে ৬৪। পাঁচ নম্বরে থাকা আর্সেনাল ৬৬ পয়েন্টে। সোমবার রাতে বার্নলির সঙ্গে ২-২ ড্র করা টেবলে চার নম্বর দল চেলসির পয়েন্ট ৬৭। এই অবস্থাতেই  লিগ শেষ হলে রেড ডেভিলসকে পরের বার আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দেখা যাবে না। ২০২১ সালে ইউরোপ-সেরার প্রতিযোগিতায় তাদের খেলতে হলে অন্তত চ্যাম্পিয়ন হয়ে আসতে হবে ইউরোপা লিগে। এমন করুণ অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে পোগবা স্বয়ং বললেন, ভক্তেরা চায় এবার অন্তত আমরা জেগে উঠি। মাঠে সেরাটা দিয়ে দারুণ কিছু ফল করতে পারলেই একমাত্র আমরা ক্লাবের অসংখ্য ভক্তের মুখে হাসি ফোটাতে পারব। বলতে পারেন, সেটাই হবে আমাদের তরফ থেকে দুঃখ প্রকাশের একমাত্র রাস্তা। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রাক্তন কিংবদন্তি কোচ স্যর অ্যালেক্স ফার্গুসন এক বার বিদ্রুপ করেছিলেন ম্যানচেস্টার সিটিকে নিয়ে। বলেছিলেন, ওরা অকারণে হইচই করে এমন প্রতিবেশী। কিন্তু সব দিন সমান যায় না। বিশেষ করে পেপ গার্দিওলা দায়িত্ব নেওয়ার পরে এবং আরব দুনিয়ার পৃষ্ঠপোষকতা পেয়ে ম্যানসিটি এখন বদলে যাওয়া ক্লাব। গত বারের প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন। এ বারও রীতিমতো খেতাবের দৌড়ে। সের্খিয়ো আগুয়েরোদের লড়াই এবার ইয়ুর্গেন ক্লপের লিভারপুলের সঙ্গে। ৩৫ ম্যাচে লিভারপুলের পয়েন্ট ৮৮। একটা ম্যাচ কম খেলে ম্যানসিটি সেখানে ৮৬ পয়েন্টে। লিভারপুলের হাতে আর তিনটি ম্যাচ। তবে তাদের বাকি প্রতিপক্ষরা বেশ দুর্বল। ইতিমধ্যেই অবনমন হয়ে যাওয়া হাডার্সফিল্ড ও লিগ টেবলে তেরো নম্বরে থাকা নিউক্যাসল যেমন। ম্যানসিটির হাতে একটা ম্যাচ বেশি থাকলেও বুধবারের ডার্বি তাদের কাছে এই মুহুর্তে সব চেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। যে ম্যাচ নিয়ে লিভারপুল কোচ যা বললেন তার সারকথা, ম্যানইউ যে অবস্থাতেই থাকুক ওরাই নাকি পারে এই মুহূর্তে ম্যানসিটিকে রুখে দিতে। এমন কথা বলায় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে ম্যানসিটির সমর্থকেরা যথেচ্ছ খারাপ ভাষায় আক্রমণ করলেন লিভারপুলের জার্মান কোচকে। একজন যেমন লিখলেন, যারা এভারটনকে হারাতে পারে না তারা আবার কীভাবে আমাদের পয়েন্ট কাড়বে? ক্লপ দিবাস্বপ্ন দেখছেন! ডার্বিতে টটেনহ্যাম ম্যাচে চোট পাওয়া কেভিন দ্য ব্রুইনকে পাচ্ছেন না পেপ গার্দিওলা। তবু তিনি বলে রাখলেন, ‘একটা সময় ছিল যখন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যানইউ অপরাজেয় ছিল। কিন্তু সে সব অতীত। এখনকার ম্যানইউ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডেও ভীতিকর ক্লাব নয়,’ লিয়োনেল মেসির প্রাক্তন গুরুর মন্তব্য যেন ফার্গুসনের সেই কটাক্ষের জবাব। পেপ অবশ্য এটাও বললেন, ‘সব ম্যাচ আলাদা। ফুটবলে ভবিষ্যদ্বাণী করার মানে হয় না।’ উদ্বেগে থাকারই কথা পেপের। চ্যাম্পিয়ন হতে লিগের শেষ চারটি ম্যাচেই তাদের জিততে হবে যে। বুধবার ইপিএলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম ম্যানচেস্টার সিটি (রাত ১২-৩০)। সূত্র: আনন্দবাজার একে//

ফের শীর্ষে লিভারপুল, হেরেই চলেছে ম্যানইউ

প্রিমিয়ার লিগ জেতার দিকে আরও একধাপ এগিয়ে গেল লিভারপুল। টটেনহ্যামকে হারিয়ে শনিবার টেবলে শীর্ষে উঠে এসেছিল ম্যাচেস্টার সিটি। আর চব্বিশ ঘণ্টা না যেতে আবার এক নম্বরে ফিরল ‘দ্য রেডস’। কার্ডিফ সিটিকে অ্যাওয়ে ম্যাচে ২-০ হারিয়ে। লিভারপুলকে রোববার প্রথম গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয় ৫৭ মিনিট। ১-০ করেন ডাচ ফুটবলার জর্জিনিয়ো ওয়েইনল। দ্বিতীয় গোল পেনাল্টি থেকে করেন জেমস মিলনার ৮১ মিনিটে। ৩৫ ম্যাচে লিভারপুলের পয়েন্ট ৮৮। এক ম্যাচ কম খেলে পেপ গার্দিওলার ম্যানসিটি সেখানে ৮৬।  অবশ্য লিভারপুলের শীর্ষে ফেরা নয়, রোববার যাবতীয় চর্চা ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হার ঘিরে। শেষ আট ম্যাচের ছ’টিতেই তারা হারল। বলা যায়, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে এখন আবার দুঃসময়। নতুন ম্যানেজার ওলে গানার সুলশার দায়িত্ব নেওয়ার পরে রোববার সব চেয়ে খারাপভাবে হারল রেড ডেভিলরা। সেইসঙ্গে প্রিমিয়ার লিগে প্রথম চারে থেকে পরের বার সরাসরি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার আশাও ক্ষীণ হয়ে গেল। অথচ ঠিক চব্বিশ ঘণ্টা আগে পল পোগবাদের সতর্ক করে দিয়েছিলেন সুলশার। পরিষ্কার বলেছিলেন, ফুটবলাররা যতই চেষ্টা করুন নিজেদের ব্যর্থতা লুকিয়ে রাখতে পারবেন না। এবং তাদের তার ফলও ভুগতে হতে পারে। এমন ইঙ্গিতও দেন যে, এভাবে খারাপ খেললে পরের মৌসুমে তাদের দলে নাও রাখা হতে পারে। কিন্তু এতটা কড়া বিবৃতির পরেও দেখা গেল রোববার গুডিসন পার্কে পোগবাদের খেলায় তার কোনও ছাপ পড়ল না। সব চেয়ে হতাশাজনক বোধহয় ম্যানইউয়ের ডিফেন্ডারদের ভূমিকা। এই মৌসুমে এবার তাদের জঘন্য পারফরম্যান্সের সৌজন্যে ইংল্যান্ডের বিখ্যাত এই ক্লাব মোট ৪৭টি গোল হজম করেছে। প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে আগে কখনও যা হয়নি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এখনও অবশ্য লিগে চারটি ম্যাচ হাতে আছে। এখন দেখার অবিশ্বাস্য কিছু করে দেখাতে পারেন কি না সুলশারের ফুটবলাররা। রোববার তাদের খেলা দেখে অবশ্য আশাবাদী হওয়ার কারণ দেখছেন ম্যানইউয়ের ভক্তেরা। এই হারের পরে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে তারা ফুটবলারদের কার্যত বিশ্রী ভাষায় আক্রমণ করলেন। বুঝিয়ে দিলেন, এভারটনের মতো দলের কাছে এই হার তারা কিছুতেই মানতে পারছেন না। এবারের প্রিমিয়ার লিগে পর্তুগিজ ম্যানেজার মার্কো সিলভার কোচিংয়ে থাকা এভারটন খুবই ভাল খেলছে। যে কারণে লিগ টেবলে এখন তারা ম্যানইউয়ের ঠিক পরেই সাত নম্বরে রয়েছে। ৩৫ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৪৯। প্রথমার্ধেই তারা ২-০ এগিয়ে যায় রোববার। ব্রাজিলীয় প্রতিভা একুশ বছরের রিচার্লিসন গোল করে ১-০ এগিয়ে দেন দলকে। মিনিট পনেরো পরে ২-০ করেন গিলভি সিউরসন। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৬ ও ৬৪ মিনিটে অন্য দু’টি গোল করেন লিকা দিউনিয়া ও থিয়ো ওয়ালকট। ম্যাচের পরে হতাশ সোলসার বলেন, ‘খেলা শুরুর বাঁশি বাজর পর থেকেই সব কিছু আমরা ভুল করেছি। এত খারাপ খেলার জন্য আমাদের ক্লাবকে যারা ভালবাসে তাদের সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। একমাত্র ওরাই বোধহয় সত্যিকারের ম্যানইউপ্রেমী। আমরা বোধহয় ক্লাবকে ওদের মতো ভালবাসি না। এতটা খারাপ খেলার পরে বলতেই হচ্ছে, এই ফুটবল ম্যানইউয়ের মতো ক্লাবের কাছে বেমানান।’ প্রিমিয়ার লিগে রোববার অবশ্য অঘটন ঘটিয়েছে ক্রিস্টাল প্যালেসও। এমিরেটস স্টেডিয়ামে খেলেও আর্সেনালকে নাটকীয়ভাবে ৩-২ গোলে হারিয়ে। গানারদের পয়েন্ট এখন ৩৮ ম্যাচে ৬৬।  সূত্র: আনন্দবাজার

লিলের ড্রয়ে চ্যাম্পিয়ন পিএসজি, এমবাপের হ্যাটট্রিক

লিগ ওয়ানে গত তিন ম্যাচে মাত্র এক পয়েন্ট পাওয়ায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ক্ষণ বারবার পিছিয়েছে পিএসজির। অবশেষে শিরোপা উৎসবের অপেক্ষা ফুরালো প্যারিসের দলটির। তুলুজের বিপক্ষে লিল পয়েন্ট হারানোয় মাঠে নামার আগেই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায় তাদের। আর কিলিয়ান এমবাপের হ্যাটট্রিকে মোনাকোকে হারিয়ে উপলক্ষ্যটা দারুণভাবে রাঙিয়েছে টমাস টুখেলের দল। রোববার রাতে লিগ ওয়ানে ঘরের মাঠে মোনাকোর বিপক্ষে ৩-১ গোলে জিতেছে পিএসজি। গত নভেম্বরে দলটির মাঠে ৪-০ ব্যবধানে জিতেছিল প্যারিসের ক্লাবটি। চ্যাম্পিয়নের মুকুট পরে পার্ক দে প্রিন্সেসে খেলতে নামা পিএসজি প্রথমার্ধেই দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। ম্যাচের পঞ্চদশ মিনিটে দারুণ এক পাল্টা আক্রমণে মুসা দিয়াবির পাস ডি-বক্সে পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের শটে বল জালে পাঠান এমবাপে। আর ম্যাচের ৩৮তম মিনিটে দানি আলভেসের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে নিচু শটে জাল খুঁজে নেন ফরাসি এই ফরোয়ার্ড। ২-০ স্কোরলাইনে শেষ হয় প্রথমার্ধ। বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৫৫তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পেয়ে যান এমবাপে। আলভেসের কাটব্যাক পেয়ে কাছ থেকে টোকায় বল জালে জড়ান ২০ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। তবে ম্যাচের ৮০তম মিনিটে অতিথিদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন রুশ মিডফিল্ডার আলেকসান্দার গোলোভিন। এ জয়ে ৩৩ ম্যাচে ২৭ জয় ও তিন ড্রয়ে টানা দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হওয়া পিএসজির পয়েন্ট ৮৪। আর ৩৩ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে লিল। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

শিরোপা জয়ের পথে আরও একধাপ এগিয়ে বার্সা

স্প্যানিশ ফুটবল লিগে জয় পেয়েছে বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। রিয়াল সোসিয়েদাদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে কাতালানরা। এই জয়ের ফলে লিগ শিরোপা জয়ের পথে এগিয়ে গেল স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ঘরে মাঠ ন্যু ক্যাম্পে অবশ্য বার্সা শুরু থেকেই অধিপত্য দেখানোর চেষ্টা করে। তবে কাতালানদের সাথে সমান তালেই লড়তে থাকে রিয়াল সোসিয়েদাদ। প্রথম গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয় প্রধমার্ধের শেষ মিনিট পর্যন্ত। ৪৫ মিনিটে কর্নার থেকে হেড দিয়ে গোল করে বার্সাকে ১-০ গোলে লিড এনে দেন ক্লেমেন্ট লেংলেট। বিরতির পর নিজেদের গুছিয়ে নেয় সোসিয়েদাদ। ৬২ মিনিটে মেরিনোর পাস থেকে অসাধারণ ফিনিশিংয়ে গোল করে সোসিয়েদাদকে ১-১ গোলে সমতায় ফেরান জুয়ানমি। তবে এই সমতা বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি সোসিয়েদাদ। ৬৪ মিনিটে লিওনেল মেসির পাস থেকে পেনাল্টি ডিবক্সের বাম পাশে বল পেয়ে যান জর্ডি আলবা। তাতে ডান পায়ের দারুণ এক বাঁকানো শটে বল জালে পাঠান তিনি। তবে শটের সময় ডেম্বেলে ছিলেন অফসাইডে দাঁড়ানো। তবে বল ডেম্বেলের পায়ে লেগেছিলো কিনা তা নিশ্চিত হতে রেফারি সহায়তা নেন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান রেফারির (ভিএআর)। সেই গোলের পর বেশ কয়েকটি সুযোগ পায় বার্সেলোনা। তবে সোসিয়েদাদের শক্ত ডিফেন্স আর ভাঙ্গতে পারেনি মেসি-সুয়ারেজরা। ফলে ২-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ভালভার্দের শিষ্যরা। এই জয়ে ৩৩ ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে বার্সেলোনা। সমান সংখ্যাক ম্যাচ খেলে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ।   টিআর/

স্লাভিয়াকে উড়িয়ে সেমিতে চেলসি

ইউরোপা লিগের সেমিতে আগেই এক পা দিয়ে রেখেছিল চেলসি। আর ফিরতি পর্বেও জিতে সেমি নিশ্চিত করেছে মাওরিসিও সারির শিষ্যরা। বৃহস্পতিবার রাতে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে চেক রিপাবলিকের দল স্লাভিয়া প্রাগকে ৪-৩ গোলে হারিয়েছে ব্লুজরা। ফলে দুই লেগ মিলে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৫-৩। নিজেদের মাঠে খেলতে নেমে ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে পেদ্রোর গোলে এগিয়ে যায় ইংলিশরা। স্বাগতিকরা এগিয়ে যাওয়ার চার মিনিট পর আত্মঘাতী গোল করে বসেন স্লাভিয়ার ডিফেন্ডার সিমোন ডেলি। ম্যাচের ১৭তম মিনিটের মাথায় ব্যবধান আরও বাড়ায় চেলসি। ডি-বক্সের মধ্যে থেকে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান ফরাসি ফরোয়ার্ড অলিভিয়ে জিরুদ। তবে ম্যাচের ২৬তম মিনিটে হেডে ব্যবধান কমান চেক রিপাবলিকের মিডফিল্ডার থমাস সুচেক। এর পরের মিনিটেই পেদ্রো কাছ থেকে লক্ষ্যভেদ করলে আবারও তিন গোলের ব্যবধানে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ৪-১ স্কোরলাইনে শেষ হয় প্রথমার্ধ। বিরতি থেকে ফিরে খেই হারাতে শুরু করে চেলসি। ব্লুস শিবিরে কাপন ধরায় সফরকারীরা। ম্যাচের ৫১তম মিনিটে ব্যবধান আরেকবার কমালো অতিথিরা। ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিচু শটে পেতর শেভচিক স্কোরলাইন ৪-২ করেন। এর ৩ মিনিট পর এই চেক মিডফিল্ডার ব্যবধান আরও কমালে রোমাঞ্চকর শেষের সম্ভাবনা জাগে। এর পরে অবশ্য আর কোনও গোলের দেখা পায়নি দু’দল। ফলে স্বাগতিকদের জয়ের পথে বাধা হতে পারেনি স্লাভিয়া প্রাগ। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে চেলসির প্রতিপক্ষ জার্মানির ক্লাব আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট। আগামী ৩ মে মাঠে গড়াবে ম্যাচটি। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

ইউরোপা লিগে দারুণ অগ্রগামিতায় সেমিতে আর্সেনাল  

ইউরোপা লিগের শেষ আটের ফিরতি পর্বেও জয় পেয়েছে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে দারুণ অগ্রগামিতায় লিগের সেমি ফাইনালে উঠেছে উনাই এমিরির শিষ্যরা। বৃহস্পতিবার রাতে নাপোলির মাঠে ১-০ গোলে জিতেছে গানাররা। এর আগে এমিরেটস স্টেডিয়ামে ২-০ গোল ব্যবধানে জয় তুলে নিয়েছিল ইংলিশরা। ফলে দুই লেগ মিলে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৩-০। স্তাদিও সান পাওলো স্টেডিয়ামে ইতালিয়ান ক্লাবটির বিপক্ষে ম্যাচের ৩৬তম মিনিটে এগিয়ে যায় আর্সেনাল। প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে রক্ষণ প্রাচীরের উপর দিয়ে জাল খুঁজে নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড আলেকসঁদ লাকাজেত। বিরতির পরও ম্যাচে ফিরতে পারেনি কার্লো আনচেলত্তির দল। ফলে হারের স্বাদ নিয়েই বিদায় নিতে হয়েছে ইউরোপা লিগের শেষ আট থেকে। এর আগে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বেই বিদায় নিতে হয়েছিল পার্তেনোপেইদের। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে স্পেনের দল ভালেন্সিয়ার মুখোমুখি আর্সেনাল। দুই লেগ মিলিয়ে ভিয়ারিয়ালকে ৫-১ গোলে হারিয়ে সেমি ফাইনালে উঠেছে ভালেন্সিয়া। আগামী ৩ মে মাঠে গড়াবে ম্যাচটি। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

হেরেও সেমিতে টটেনহ্যাম

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচের প্রথম ২১ মিনিটেই ৫ গোল! চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে এত কম সময়ে ৫ গোল অতীতে কখনও হয়নি। শ্বাসরুদ্ধকর এই লড়াইয়ে হেরেও সেমি ফাইনালে উঠল টটেনহ্যাম হটস্পার। বুধবার রাতে শেষ আটের ফিরতি পর্বে ৪-৩ গোলে জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি। প্রথম লেগে টটেনহ্যামের কাছে তাদের ডেরায় ০-১ গোলে হারতে হয়েছিল সিটিকে৷ ফলে দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৪-৪। কিন্তু প্রতিপক্ষের মাঠে গোল করায় শেষ চারের টিকেট পায় টটেনহ্যাম। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে গোল উৎসবের শুরু ম্যাচের চতুর্থ মিনিটে। সতীর্থের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ডি-বক্সে রক্ষণচেরা পাস বাড়ান কেভিন ডি ব্রুইনে। জায়গা বানিয়ে ডান পায়ের জোরালো শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন রাহিম স্টার্লিং। কিন্তু এর পরেই গোল শোধ করে মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। আক্রমণ রুখতে গিয়ে ফরাসি ডিফেন্ডার এমেরিক লাপোর্ত বল ঠেলে দেন হিউং-মিনের পায়ে। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার নেওয়া নিচু সোজাসুজি শট গোলরক্ষক এদেরসনের পায়ে লেগে ভিতরে ঢোকে। এর ঠিক ৩ মিনিট পর সন হিউংই নিজের দ্বিতীয় গোল করে লিড এনে দেন টটেনহ্যামকে৷ তবে পরের মিনিটে সার্জিও আগুয়েরোর পাস থেকে ম্যানসিটিকে সমতায় ফেরান সিলভা৷ আর ম্যাচের ২১তম মিনিটে ডি’ব্রুইনের পাস থেকে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন স্টার্লিং৷ ফলে প্রথমার্ধে স্কোরলাইন ছিল সিটির অনুকূলে ৩-২৷ বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৫৯তম মিনিটে ডি’ব্রুইনের পাস থেকে গোল করেন আগুয়েরো৷ কিন্তু ম্যাচের ৭৩তম মিনিটে সিটির জালে বল জড়িয়ে স্কোর-লাইন ৪-৩ করেন লরেন্তে৷ ম্যাচের বাকি সময়ে স্কোরলাইনে কোনও পরিবর্তন হয়নি। ফলে ম্যাচ শেষে সিটি খেলোয়াড়দের চোখে মুখে ছিল হতাশা, কারও চোখে পানি। কারণ দুর্দান্ত এ জয়ের পরও যে বিদায় নিতে হলো ইউরোপ সেরার মঞ্চ থেকে।   সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

জুভেন্টাসকে বিদায় করে শেষ চারে আয়াক্স

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আটের প্রথম লেগে আয়াক্সের মাঠে ড্র করতে ঘাম ছুটে গিয়েছিল জুভেন্টাসের। তবে নিজেদের আঙিনায় ফিরে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর গোলে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল তুরিনের বুড়িরা। কিন্তু দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ানো আয়াক্সের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত পেরে ওঠেনি তারা। ফলে শেষ চারে উঠে গেল নেদারল্যান্ডসের দলটি। মঙ্গলবার রাতে জুভেন্টাসের মাঠে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় তুলে নেয় এরেদিভিসের শিষ্যরা। দুই ম্যাচ মিলে তাদের পক্ষে গোলের গড় দাঁড়াল ৩-২। নিজেদের মাঠে খেলতে নেমে ম্যাচের ২৮তম মিনিটে এগিয়ে যায় ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। মিরালেম পিয়ানিচের কর্নারে রোনালদোর হেড এক ড্রপ খেয়ে জালে জড়ায়। চলতি আসরে যা রোনালদোর ষষ্ঠ এবং সবমিলিয়ে রেকর্ড ১২৬তম গোল। তবে ম্যাচে ফিরতে বেশি দেরি করেনি অতিথিরা। ৩৪তম মিনিটে ম্যাচে সমতা ফেরান ডাচ ফরোয়ার্ড ডন ফন ডি বিক। হাকিম জিয়েচির সহায়তা গোলটি করেন তিনি। সমতায় শেষ হয় প্রথমার্ধ। বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৬৭তম মিনিটে আয়াক্সকে সেমিফাইনালের টিকিট এনে দেওয়া গোলটি করেন ডি লিট। কর্নার কিক থেকে উড়ে আসা বলে হেড করে বল জালে জড়ান তিনি। ম্যাচের বাকিটা সময়ে কঠিন হয়ে যাওয়া সমীকরণ আর মেলাতে পারেনি জুভিরা। ফলে গুরুত্বপূর্ণ জয়টি নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারে আয়াক্স। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

মেসি জাদুতে বিধ্বস্ত ম্যানইউর বিদায়

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটের প্রথম লেগে প্রতিপক্ষের মাঠে গোল পাননি। তবে ১-০ গোলের জয়ে সরাসরি অবদান ছিলো তার। আর দ্বিতীয় লেগে যেনো গোল না পাওয়ার আক্ষেপটাই মেটালেন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসি। ফলে শেষ চারের টিকেট পায় বার্সেলোনা। আর পুড়ে ছারখার ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। মঙ্গলবার রাতে কাম্প নউয়ে শেষ আটের ফিরতি পর্বে ৩-০ গোলে জিতেছে এরনেস্তো ভালভেরদের দল। এই একপেশে জয়ের সৌজন্যে দুই ম্যাচ মিলে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের পক্ষে গোলের গড় দাঁড়াল ৪-০। নিজেদের মাঠে খেলতে নেমে ম্যাচের ১৬তম মিনিটে একক দক্ষতায় গোল করে বার্সাকে ম্যাচে প্রথমবারের জন্য এগিয়ে দেন এলএমটেন। ডান দিকে মিডফিল্ডার অ্যাশলে ইয়ংয়ের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে এক জনকে কাটিয়ে কিছুটা আড়াআড়ি এগিয়ে বাঁ পায়ের ট্রেডমার্ক শটে পোস্ট ঘেঁষে জাল খুঁজে নেন আর্জেন্টাইন তারকা। এরপর ম্যাচের ২০তম মিনিটে গোলরক্ষক দাভিদ দে হেয়ার অবিশ্বাস্য ভুলে দ্বিতীয় গোল পায় স্বাগতিকরা। মেসির সহজ শট ঝাঁপিয়ে পড়া গোলরক্ষকের হাত গলে জালে জড়িয়ে যায়। ২-০ স্কোরলাইনে শেষ হয় প্রথমার্ধ। বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচ আরও দখলে নিয়ে নেয় পাঁচবারের ইউরোপ সেরা বার্সেলোনা। ম্যাচের ৬১তম মিনিটে বক্সের টপ কর্ণার থেকে দুরন্ত গোলে ম্যাচে প্রতিপক্ষের ফিরে আসার সমস্ত পথ বন্ধ করে দেন ব্রাজিল তারকা কৌতিনিহো। এরপর ম্যাচের বাকি সময়টা আর কোনও পক্ষ গোল করতে না পারায় ৩-০ গোলে জয় নিশ্চিত হয় কাতালান ক্লাবটির। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

এক পায়েই ‘মেসি ম্যাজিক’! (ভিডিও)

মায়ানমারের ১৬ বছরের কিশোর কঙ কান্ত লিন। ফুটবল দেখলেই তার মনে উদ্বেলিত হয়। লিওনেল মেসি ও ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ভক্ত লিনের সমস্যা একটাই। তার ডান পা সুগঠিত নয়। তাই তাকে হাঁটা চলা করতে হয় ক্রাচের সাহায্যে। তবে এই প্রতিবন্ধকতা তার ফুটবল খেলার ইচ্ছাকে দমিয়ে রাখতে পারেনি। তাই ক্রাচ নিয়েই বন্ধুদের সঙ্গে ফুটবল মাঠে নেমে পড়ে লিন। পায়ের সমস্যা থাকলেও পাঁচ বছর বয়সে প্রথম ফুটবল খেলার ইচ্ছা জাগে লিনের। তারপর কাকার তৈরি করে দেওয়া কাঠের ক্রাচ নিয়েই রাস্তায় বন্ধুদের সঙ্গে ফুটবলে লাথি মারত সে। একটু বড় হতেই ফুটবলার হওয়ার ইচ্ছা চেপে বসে তার মনে। ক্রাচ নিয়েই ফুটবল খেলা শুরু করে দেয় সে। লিন এখন বন্ধুদের সঙ্গে নিয়মিত ফুটবল খেলে। এ বছর জানুয়ারি মাসে মায়ানমারের স্বাধীনতা দিবসে অনুষ্ঠিত একটি ফুটবল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণও করেছিল সে। তার করা গোলেই ওই প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়েছিল দল। সেই প্রতিযোগিতায় সেরা ফুটবলারের সম্মানও পেয়েছিল লিন। লিনের ফুটবল খেলার সেই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই ভাইরাল হয়েছ। প্রচুর মানুষ কমেন্টে উৎসাহিত করেছেন লিনকে। মায়ানমারের এক সংবাদ মাধ্যমকে লিন বলেছে, ‘‘আমার উচ্চতা কম, তাই বিপক্ষের ফ্রি কিক আটকে দিতে পারি না। কিন্তু বল নিয়ে দৌড়তে আমার খুব ভাল লাগে।’’  ভিডিও তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার এমএইচ/

কষ্টার্জিত জয়ে চারে আর্সেনাল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে কষ্টের জয় পেয়েছে আর্সেনাল। এতে পয়েন্ট তালিকায় চেলসিকে পেছনে ফেলে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে উনাই এমেরির দল। সোমবার ওয়াটফোর্ডের মাঠ ভিকারেজ রোড স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে জিতেছে আর্সেনাল। গত সেপ্টেম্বরে লিগের প্রথম পর্বে নিজেদের মাঠে ওয়াটফোর্ডকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল গানাররা। প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের ভুলে পাওয়া বলে ম্যাচের ১১তম মিনিটেই লিড পায় আর্সেনাল। সতীর্থের ব্যাক পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়েও ঠিকঠাক বিপদমুক্ত করতে পারেননি বেন ফস্টার। তার শট নেওয়ার সময় দ্রুত দৌড়ে গিয়ে পা চালিয়ে দেন পিয়েরে-এমেরিক আউবামেয়াং। ফরাসি ফরোয়ার্ডের পায়ে লেগে বল জালে জড়ায়। এ দিন জালের দেখা পায়নি ওয়াটফোর্ড। আর শুরুতে এগিয়ে যাওয়া আর্সেনাল পরে আর ব্যবধান বাড়াতে পারেনি। ফলে কষ্টাজিত জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। এই জয়ে ৩৩ ম্যাচে ২০ জয় ও ছয় ড্রয়ে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে চেলসিকে পেছনে ফেলেছে আর্সেনাল। লিভারপুল ৩৪ ম্যাচে ২৬ জয় ও সাত ড্রয়ে ৮৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। ২ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে ম্যানচেস্টার সিটি। পেপ গার্দিওলার দল অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেছে। টটেনহ্যাম হটস্পার ৩৩ ম্যাচে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে। সূত্র: লাইভস্কোর ডটকম একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি